Aristotle was a Greek philosopher and polymath during the Classical period in Ancient Greece

Aristotle: গ্রিক দার্শনিক অ্যারিস্টটলের প্রয়াণ দিবস

ইতিহাস

অ্যারিস্টটল (Aristotle) বিশ্ববিখ্যাত একজন গ্রিক বিজ্ঞানী ও দার্শনিক। তাকে আবার প্রাণীবিজ্ঞানের জনক বলা হয়। প্লেটোর সাথে যৌথভাবে তাকে “পশ্চিমা …

অ্যারিস্টটল (Aristotle) বিশ্ববিখ্যাত একজন গ্রিক বিজ্ঞানী ও দার্শনিক। তাকে আবার প্রাণীবিজ্ঞানের জনক বলা হয়। প্লেটোর সাথে যৌথভাবে তাকে “পশ্চিমা দর্শনের জনক” বলে অভিহিত করা হয়। এরিস্টটল, সক্রেটিস ও প্লেটোর দর্শনসহ তার পূর্বের সময়ের বিদ্যমান বিভিন্ন দর্শনের জটিল ও সদৃশ সমন্বয় দেখান। আজ তাঁর প্রয়াণ দিবস। পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হয়ে খ্রিষ্টপূর্ব ৩২২ সালের ৭ই মার্চ তিঁনি মৃত্যু বরণ করেন। জ্ঞানের এমন কোনো দিক নেই যে তিনি যেদিকে আলো ফেলেননি। ‘পলিটিকস’ তাঁর গ্রন্থ আধুনিক রাষ্ট্রনীতির সূচনা করেছিল।

Aristotle was a Greek philosopher and polymath during the Classical period in Ancient Greece
Aristotle was a Greek philosopher and polymath during the Classical period in Ancient Greece

তিনি দ্বিগ্বীজয়ী বীর আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট এর শিক্ষক ছিলেন, আবার বিখ্যাত দার্শনিক প্লেটোর ছাত্র ছিলেন। বই লিখে অনেক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন তিনি। তার লেখার বিষয়ের মধ্যে ছিল পদার্থবিজ্ঞান, অধিবিজ্ঞান, দর্শন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, রাজনীতি, ভাষা, সঙ্গীত, থিয়েটার, উদ্ভিদবিজ্ঞান, প্রাণীবিজ্ঞান, রসায়ন, জোতির্বিজ্ঞান ইত্যাদি। খ্রিষ্টপূর্ব ৩৮৪ সালে থারেস উপকূলবর্তী স্টাগিরাস নামক এক গ্রিক উপনিবেশে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা নিকোম্যাকাস ম্যাসিডোনিয়ার রাজা আমিন্টাসের রাজসভায় গৃহচিকিৎসক ছিলেন। চিকিৎসা ব্যবসায়ই তাদের পরিবারিক জীবিকা উপার্জনের একমাত্র উপায় ছিল।

ইতালীয় ভাস্কর, চিত্রকর, স্থপতি এবং কবি মাইকেলেঞ্জেলোর – আরও জানতে ক্লিক করুন

মেধাবী অ্যারিস্টটল সহজেই প্লেটোর একাডেমিতে সুযোগ পেয়ে যান। সেখানে তিনি ২০ বছর কাটান এবং বিজ্ঞান ও দর্শনের উপর পড়াশোনা করেন। প্লেটোর মৃত্যুর পর মাইসিয়ার রাজা এবং অ্যারিস্টটলের বন্ধু হারমিয়াস অ্যারিস্টটলকে তার রাজসভায় সভাসদ হবার আমন্ত্রণ জানান। তিনি লাইসিয়াম নামক এলাকায় নিজের স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তী তের বছর তিনি শিক্ষকতা ও তার দর্শন প্রচার করে কাটান। তিনি দিনে তার ঘনিষ্ঠ ছাত্রদের জন্য ও রাতে এথেন্সের সাধারণ জ্ঞানপিপাসু জনগণের জন্য লেকচার দিতেন।তার রচনার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে মেটাফিজিকস (অধিবিদ্যা) এবং এথিক্স (নীতিশাস্ত্র) এই দুটি বিষয়। এরমধ্যে তিনি মত দিয়েছেন, জীবন গতিশীল এবং ক্রমাগত তার বিকাশ ঘটছে। অ্যারিস্টটল মানব ইতিহাসের এক শ্রেষ্ঠতম প্রজ্ঞাময় ব্যক্তি। যার উদ্ভাবিত জ্ঞানের আলোয় রাষ্ট্রনীতি, সমাজনীতি, যুক্তিবিদ্যা, অধিবিদ্যা সমৃদ্ধ হয়েছে।

কবি ও নাট্যকার ডি এইচ লরেন্সের জীবনী – আরও জানতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *