Bengali writer and Sheriff of Kolkata Mani Shankar Mukherjee generally known as Shankar

প্রখ্যাত সাহিত্যিক মণিশঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের জন্মদিন

ইতিহাস

মগজ ও মশির মেলবন্ধন, তিনি (Mani Shankar Mukherjee) বাংলা সাহিত্যকে নানা দিক দিয়ে সমৃদ্ধ করেছেন। আজ ৮৭ বছরে পা দিলেন সাহিত্যিক …

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলা সাহিত্যের এক অন্যতম নক্ষত্রের নাম মণিশঙ্কর মুখোপাধ্যায় বা শংকর। মগজ ও মশির মেলবন্ধন, তিনি (Mani Shankar Mukherjee) বাংলা সাহিত্যকে নানা দিক দিয়ে সমৃদ্ধ করেছেন। আজ ৮৭ বছরে পা দিলেন সাহিত্যিক শঙ্কর ৷ ১৯৩৩ সালের ৭ই ডিসেম্বর যশোরের বনগ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। আইনজীবী বাবা হরিপদ মুখোপাধ্যায় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর আগে হাওড়াতে চলে আসেন। সেখানেই শংকরের পড়াশোনা ও সাহিত্য সাধনার শুরু। জীবনের ধারা নানা দিক দিয়ে প্রবাহিত হয়। ফেরিওয়ালা, টাইপরাইটার ক্লিনার, প্রাইভেট টিউশনি, শিক্ষকতা ও জুট ব্রোকারের কনিষ্ঠ কেরানিগিরি করেছেন এই কিংবদন্তি সাহিত্যিক।

Bengali writer and Sheriff of Kolkata Mani Shankar Mukherjee generally known as Shankar
Bengali writer and Sheriff of Kolkata Mani Shankar Mukherjee generally known as Shankar

পঞ্চাশের দশকের প্রথম দিকে তখনও ভারত ছাড়েননি সাহেবরা। কলকাতা হাইকোর্টে ওকালতি করছেন ইংরেজ ব্যারিস্টার নোয়েল ফ্রেডরিক বারওয়েল। ইনিই ছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের শেষ ইংরেজ ব্যারিস্টার। সেই নোয়েল ফ্রেডরিক বারওয়েলের কাছে হাজির হন এক বাঙালি তরুণ। সাহেবের অফিস অ্যাসিস্ট্যান্ট হয়ে শুরু করলেন তার কাজ। তবে সে তো কেবল পকেটের জন্য; ভেতরের স্বপ্ন যে অন্য। তরুণটি লিখতে চান। কিন্তু সাহেব বেশ অসুবিধাতে পড়লেন। এত বড় একটি বাঙালি নাম, উচ্চারণ করাও সমস্যার। সেই কারণেই ছোটো হল সেই তরুনের নাম। সেদিন থেকেই, ‘মণিশংকর মুখোপাধ্যায়’ হয়ে গেলেন ‘শংকর‘।

[ আরও পড়ুন ] অভিনেতা মনু মুখোপাধ্যায় – আবার এক নক্ষত্র পতন !!!

এরপর চারপাশ থেকে উপাদান নিয়ে শুরু করেন সাহিত্য লেখা। উনিশ-কুড়ি বয়সেই শুরু করলেন ‘কত অজানারে’ লেখার কাজ ‘দেশ’ পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ ও ১৯৫৫ সালে বইয়ের আকারে প্রকাশ পায় ‘কত অজানারে’। প্রথম লেখাতেই সাফল্যের বাজিমাত। সাহিত্যমহলে সদর্পে পা রাখলেন শংকর। ঋত্বিক ঘটক সাহিত্যিকের লেখা ‘কত অজানারে’ উপন্যাসটি নিয়ে ছবি তৈরি করা শুরু করেছিলেন। কিন্তু শেষ হওয়ার আগেই পরিচালক প্রয়াত হন ৷

[ আরও পড়ুন ] Bishnu Dey: বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তি কবি বিষ্ণু দে

বিখ্যাত পরিচালক সত্যজিৎ রায় তার সীমাবদ্ধ ও জন অরণ্য উপন্যাসের কাহিনী অবলম্বনে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। তার চৌরঙ্গী উপন্যাস অবলম্বনে সিনেমার মুখ্য চরিত্র স্যাটা বোসের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন উত্তম কুমার। ‘সম্রাট ও সুন্দরী’, ‘নিবেদিতা রিসার্চ ল্যাবরেটরি’, ‘বীরেশ্বর বিবেকানন্দ’, চরণ ছুঁয়ে যাই , ঘরের মধ্যে ঘর, মানব সাগরের তীরে প্রভৃতি তার কালজয়ী সৃষ্টি। ২০১৬ সালে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি সাম্মানিক ডি.লিট সম্মান পান। ২০১৯ সালে তাকে ১ বছরের জন্য কলকাতার শেরিফ পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *