History and Importance of International Migrants Day in Bengali

International Migrants Day: আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস

ইতিহাস

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২০০০ সালের ৪থা ডিসেম্বর, দিনটি (International Migrants Day) বিশ্বব্যাপী উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা: আজ আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস। প্রত্যেক বছর ১৮ই ডিসেম্বর জাতিসংঘের সকল সদস্যভূক্ত সকল দেশে পালিত হয়ে আসছে। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২০০০ সালের ৪থা ডিসেম্বর, দিনটি (International Migrants Day) বিশ্বব্যাপী উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয়। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ব্যাপক হারে অভিবাসন ও বিপুলসংখ্যক অভিবাসীদের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়াদিকে ঘিরে এই দিবসের উৎপত্তি।

১৯৯০ সালের ১৮ই ডিসেম্বর, সাধারণ পরিষদ অভিবাসী শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ও পরিবারের ন্যায্য অধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক চু্ক্তি ৪৫/১৫৮ প্রস্তাব আকারে গ্রহণ করে। আজকের এই দিবসটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস উদযাপন/পালন করা হয়েছে।

History and Importance of International Migrants Day in Bengali
History and Importance of International Migrants Day in Bengali

শার্লট টাইলর জানান, “অভিবাসী যথেষ্ট নিরাপদ একটি পরিভাষা। তবে এটি ভবিষ্যতেও নিরাপদ হিসেবে বিবেচিত হবে, তবে বর্তমানে অভিবাসী বেশ নিরাপদ একটি পরিভাষা।” যদিও রাজনৈতিক অভিবাসনের ক্ষেত্রে কিছুটা জটিলতা তৈরি হয়। কোনো ব্যক্তি যখন বিশেষ কোনো শাসনাবস্থা থেকে দূরে যেতে চায়, তখন এই মন্দ পরিস্থিতি তৈরী হয়। আবার ভিনদেশে স্থায়ীভাবে যখন কেউ বসবাস করতে আসে তখন তাদের সাধারণত প্রবাসী বলা হয়ে থাকে। এই ধরণের মানুষ সাধারণত নিজের ইচ্ছাতেই নিজ দেশ ছেড়ে অন্য দেশে পাড়ি জমান। কর্মসংস্থান, উন্নত জীবন, পারিবারিক বা ব্যক্তিগত কারণে অনেকে স্থায়ীভাবে বিদেশে বসবাস করার সিদ্ধান্ত নেন।

[ আরও পড়ুন ] Human Rights Day – বিশ্ব মানবাধিকার দিবস

এছাড়া শরণার্থী বলা হয় এমন কোনো ব্যক্তিকে যিনি যুদ্ধ, গণহত্যা বা প্রাকৃতিক দুর্যোগ এড়াতে দেশান্তরী হন।যে মুহুর্তে আপনি কাউকে শরণার্থী হিসেবে স্বীকৃতি দেবেন, তখনই তার নির্দিষ্ট কিছু অধিকারকেও স্বীকৃতি দিতে হবে আপনার। ১৯৯৭ সাল থেকে ফিলিপিনো ও অন্যান্য এশীয় অভিবাসী সংগঠনগুলো দিবসটি পালন করতে শুরু করে। ১৯৯০ সালে জাতিসংঘ অভিবাসী শ্রমিক ও দেশে রেখে আসা তাদের পরিবারের নিরাপত্তা রক্ষায় আন্তর্জাতিক সম্মেলন করেছিল। ১৯৯৯ সালের শেষার্ধে অন লাইনে ব্যাপক প্রচারণার ফলে জাতিসংঘের মুখপাত্র এ দিবসটিকে ‘আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *