Kalpana Chawla was an American astronaut, engineer, and the first woman of Indian descent to go to space

Kalpana Chawla: মহাকাশচারী কল্পনা চাওলার প্রয়াণ দিবস

ইতিহাস বিজ্ঞান

কল্পনা চাওলা (Kalpana Chawla), একজন বিখ্যাত ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নভোচারী এবং নভোযান বিশেষজ্ঞ। কলম্বিয়া নভোখেয়াযান …

কল্পনা চাওলা (Kalpana Chawla), একজন বিখ্যাত ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নভোচারী এবং নভোযান বিশেষজ্ঞ। কলম্বিয়া নভোখেয়াযান বিপর্যয়ে যে সাতজন মহাকাশচারী তাদের মধ্যে তিনি একজন। পৃথিবীতে অবতরণ করতে গিয়ে বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষে এই নভোখেয়াযানটি বিধ্বস্ত হয়ে গিয়েছিল। ২০০৩ সালের ১লা ফেব্রুয়ারি। মহাকাশ অভিযান সেরে পৃথিবীতে ফিরছিল মহাকাশযান কলম্বিয়া। কিন্তু, ভূ-পৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২ লাখ ফুট উচ্চতায় ধ্বংস হয়ে যায় ওই মহাকাশযানটি। কল্পনা চাওলা ১৯৬২ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ মার্চ ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের কারনালে বসবাসকারী এক হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। কল্পনা তার মাধ্যমিক শিক্ষা সমাপন করেন ঠাকুর বালনিকেতন সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুল, কারনাল থেকে।

১৯৮২ খ্রিষ্টাব্দে তিনি চণ্ডীগড়ের পাঞ্জাব প্রকৌশল কলেজ থেকে মহাকাশ প্রকৌশলের ওপর স্নাতকের পাঠ সম্পন্ন করেন। উচ্চশিক্ষার জন্যে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান এবং সেখানে ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস অ্যাট আর্লিংটন থেকে একই মহাকাশ প্রকৌশল বিষয়ে স্নাতকোত্তর শিক্ষা সমাপ্ত করেন ১৯৮৪ খ্রিষ্টাব্দে। পরবর্তীতে কল্পনা ১৯৮৬ খ্রিষ্টাব্দে ইউনিভার্সিটি অফ কলোরাডো অ্যাট বউল্ডের থেকে পিএইচডি ডিগ্রি প্রাপ্ত হন। কল্পনাকে ‘কংগ্রেশনাল স্পেশ মেডেল অফ অনার’, ‘NASA স্পেশ ফ্লাইট মেডেল’ এবং ‘NASA বিশেষ সার্ভিস মেডেল’ সম্মানে ভূষিত করেছিল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। ১৯৯৫ সালে তিনি NASA-র ‘অ্যাস্ট্রোনট কোর্স’-এ যোগ দেন। পরের বছরেই কল্পনা তাঁর প্রথম মহাকাশ অভিযানের জন্য নির্বাচিত হন।

১৯৮৮ খ্রিষ্টাব্দে কল্পনা নাসাতে তার কর্মজীবন শুরু করেন। তার প্রথম মহাকাশ যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৭ খ্রিষ্টাব্দের ১৯ নভেম্বর। তিনিই প্রথম ভারতীয় মহিলা হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করেন। তিনি ছিলেন দ্বিতীয় ভারতীয় বংশোদ্ভূত যিনি ১৯৯৭ সালে মহাকাশযান ‘কলম্বিয়া’য় করে মহাকাশে পাড়ি দেন। ২০০০ সালে তাঁকে আবার নিবার্চন করা হয় মহাকাশে যাওয়ার জন্য। এই অভিযানটি শুরু হয় বেশ কিছু বছর পর, ২০০৩ সালে। এটাই ছিল কল্পনার শেষ যাত্রা। কল্পনা’র দুর্ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে নতুন মহাকাশযান তৈরি করে NASA। যার নাম দেওয়া হয়, ‘ওরিয়ন’ – বাংলায় ‘কালপুরুষ’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *