World Elder Abuse Awareness Day or WEAAD

বিশ্ব প্রবীণ নির্যাচন সচেতনতা দিবস

ইতিহাস

আজ বিশ্ব প্রবীণ নির্যাচন সচেতনতা দিবস (Elder Abuse Awareness Day)। নবীনদের স্বার্থপরতা আর দ্রুততার আরামের জীবন থেকে তারা বিলীন হয়ে…

নিজস্ব প্রতিবেদন: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, “ ওরে আমার নবীন, ওরে আমার কাঁচা, আধমরাদের ঘ দিয়ে তুই বাঁচা।” তিনি বৃদ্ধ হলেন, বৃদ্ধ হলেন, বনস্পতির ছায়া দিলেন সারা জীবন। … কিন্তু ছায়া দান করলেও শেষবেলায় তার কিছুই জোটে না। কোনো ক্রমে বেঁচে থেকে শেষে দিন গুনতে থাকে। সেই সব প্রবীণ মানুষেরা খুব অসহায়। আজ বিশ্ব প্রবীণ নির্যাচন সচেতনতা দিবস (Elder Abuse Awareness Day)।

Old age people abuse in India
Old age people abuse in India

নবীনদের স্বার্থপরতা আর দ্রুততার আরামের জীবন থেকে তারা বিলীন হয়ে যায়। কিন্তু তাদের পাশে থাকা সকলের উচিত। আজ বিশ্ব প্রবীণ নির্যাচন সচেতনতা দিবস (WEAAD)। এই দিনে পৃথিবীর সব প্রবীণের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে হবে। পাশাপাশি প্রবীণদের শারীরিক, মানসিক এবং অর্থনৈতিক বৈষম্য এবং নির্যাতনের বিরুদ্ধে সচেতনতা তৈরীতে দৃঢ় অঙ্গীকার গ্রহণ করতে হবে।

ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক ফর দ্য প্রিভেনশন অফ এল্ডার অ্যাবিউস:

২০১৫ সালে সারা বিশ্বে ৯০০ মিলিয়ন ৬০ বছর এবং তার বেশি বোয়সের মানুষ ছিলেন। ২০৫০ সালে তা বেড়ে হবে প্রায় দুই বিলিয়ন। ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক ফর দ্য প্রিভেনশন অফ এল্ডার অ্যাবিউসে’র অনুরোধে প্রথমবার ২০০৬ সালের জুনে এই অনুষ্ঠান হয়। রাষ্ট্রপুঞ্জের উদ্যোগে এটি উদযাপন করা হয়। প্রতি বছর ১৫ই জুন এই দিবস পালন করা হয়।

বিশ্ব সাইকেল দিবস – আরও জানতে ক্লিক করুন …

এই দিবস পালনের লক্ষ্য হল, বয়স্কদের উপরে নির্যাতন এবং যন্ত্রণা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা। প্রবীণদের উপর অত্যাচার, অবহেলা সম্পর্কে বিভিন্ন সম্প্রদায়কে আরও সচেতন করে তুলতে হবে। উন্নয়নশীল এবং উন্নত দুই প্রকারের দেশগুলিতেই প্রবীণদের উপর নির্যাতন হয়। এইমুহূর্তে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ জনস্বাস্থ্য সমস্যা। তবে বিশ্ব জুড়ে এই সংক্রান্ত খুব কম ঘটনা নথিভুক্ত হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি সমীক্ষা:

বয়স্কদের উপর অত্যাচার নিয়ে আলোচনা সমাজের সব স্তরে হয় না। দায় এড়িয়েই চলতে চায় সকলে। কিন্তু এই বিষয়কে গুরুত্ব দিতে হবে। ২০১৭ সালের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি সমীক্ষা থেকে জানা যায়, সারা পৃথিবী জুড়ে ৬০ বছর বা তার থেকে বেশি বয়স্কদের মধ্যে ১৬% মানুষ নির্যাতনের শিকার হন। এর মধ্যে ১১.৬% মানসিক নির্যাতন, ৬.৮% আর্থিক বঞ্চনা, অবহেলার শিকার ৪.২%, ২.৬% শারীরিক নির্যাতনের শিকার এবং ০.৯% যৌন নিগ্রহের শিকার হন।

আন্তর্জাতিক নার্স দিবস ও ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল -এর জন্মদিন – আরও জানতে ক্লিক করুন …

আগামীতে প্রায় সকল দেশে বয়স্কদের উপর অত্যাচারের ঘটনা আরও বৃদ্ধি পাবে। সারা পৃথিবীতেই প্রবীণদের সংখ্যা বাড়ছে। ভারতের মোট জনসংখ্যার ৮.৫৭% প্রবীণ, ২০২১ এবং ২০২৬ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে হবে যথাক্রমে ১০.৭০% এবং ১২.৪০%। সরকারি ও বেসরকারি দপ্তর থেকে আরও কল্যাণমূলক প্রকল্প চালু করতে হবে। একান্নবর্তী পরিবারের প্রয়োজনীয়তা সামনে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *