Assam Govt Decides to Shut Down All Govt Run Madrassas And Sanskrit Tols

Madrassas And Sanskrit Tols: মাদ্রাসা ও সংস্কৃত টোল বন্ধ

ভারতবর্ষ

সমস্ত সংস্কৃত টোল এবং রাজ্য সরকারি মাদ্রাসা (Madrassas And Sanskrit Tols) বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অসমের বিজেপি সরকার। আগামী ৬ …

এক অদ্ভুত সিদ্ধান্ত নিলো অসম সরকার। এই রাজ্যের সমস্ত সংস্কৃত টোল এবং রাজ্য সরকারি মাদ্রাসা (Madrassas And Sanskrit Tols) বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অসমের বিজেপি সরকার। আগামী ৬ মাসের মধ্যে সেগুলিকে স্কুলে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে অসমের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানান, “আমাদের ১,২০০ মাদ্রাসা এবং ২০০ সংস্কৃত টোল রয়েছে অসমে, তাদের কোনও চালানোর কোনও স্বাধীন বোর্ড নেই। অনেক সমস্যা হচ্ছে, কারণ, তারা মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের সমতূল শংসাপত্র পান। সেই জন্য সমস্ত মাদ্রাসা এবং সংস্কৃত টোল বোর্ডকে সাধারণ স্কুলে পরিণত করার সিধান্ত নিয়েছে সরকার”।

আসলে মাদ্রাসা ও সংস্কৃত টোল বন্ধের পক্ষে রাজ্যের যুক্তি হল, মাদ্রাসা বা টোল চালানো কোনও ধর্মনিরপেক্ষ সরকারের কাজ হতে পারে না। প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালেই অসমের বিজেপি সরকার মাদ্রাসা ও টোল বোর্ড দুটির অবলুপ্তি ঘটায়। দুটি বোর্ডকে মিশিয়ে দেওয়া হয় সেকেন্ডারি বোর্ড অফ অসমের সঙ্গে। শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, “ধর্ম ও আধ্যাত্ম নিয়ে শিক্ষাপ্রদান করা কোনো ধর্মনিরপেক্ষ সরকারের কাজ নয়।” এর আগেও এই ধরনের ঘোষণা করেছেন অসমের শিক্ষামন্ত্রী। ২০১৭ সালের মে মাসে অসমে বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় আসার পরে একই ঘোষণা করেছিলেন হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

অসমের শিক্ষামন্ত্রী জানান, অভিভাবকদের সিদ্ধান্তের জন্য শিশুরা যাতে প্রকৃত শিক্ষা থেকে বঞ্ছিত না হয়, তার জন্য আমাদের এই পদক্ষেপ।১৪ বছরের নিচে শিশুরা সেখানে যায়, তাদের অভিভাবকরাই ঠিক করেন, শিশুদের কোথায় ভর্তি করা হবে। অতিরিক্ত ধর্মীয় শিক্ষার কারণে বাচ্চারা প্রকৃত শিক্ষা থেকে বঞ্ছিত হোক, সরকার তা চায় না। সরকারের পক্ষ থেকে একটি নির্দেশিকা আনা হবে, যাতে নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম থাকে এবং ধর্মীয় শিক্ষার সঙ্গে যাতে স্বাভাবিক শিক্ষাও দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *