ED Seizes Assets Linked with Gangster Iqbal Mirchi

ইডির নজরে দাউদ ঘনিষ্ঠ ইকবাল মির্চির রাজত্ব

ভারতবর্ষ

কুখ্যাত ছোটা রাজনের গ্রেপ্তারির পর থেকে দাউদ ইব্রাহিমের সাথীদের (Gangster Iqbal Mirchi) বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে শুরু করে ভারতীয় …

নিজস্ব সংবাদদাতা: দীর্ঘদিন ধরে দাউদ অধরা। সে খুব আদরে পাকিস্থানের নিরাপদ আশ্রয়ে আছে। সেখান থেকেই মুম্বাইকে নিয়ন্ত্রণ করতে মরিয়া। সেই দাউদকে ধরার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। কুখ্যাত ছোটা রাজনের গ্রেপ্তারির পর থেকে দাউদ ইব্রাহিমের সাথীদের (Gangster Iqbal Mirchi) বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে শুরু করে ভারতীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলি। দেশ বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে থাকা দাউদ সাম্রাজ্যের শক্তিশালী জাল কাটার কাজ শুরু হয়।

ED Seizes Assets Linked with Gangster Iqbal Mirchi
ED Seizes Assets Linked with Gangster Iqbal Mirchi

ব্যবসায়ী ইকবাল মির্চি ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এক বছর ধরে তদন্ত চালাচ্ছিল ইডি। সেই কুখ্যাত দাউদ ঘনিষ্ঠ ইকবাল মির্চির সম্পত্তি ইডির জালে। প্রয়াত ইকবাল মির্চির ৮০০ কোটি টাকার সম্পত্তি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বাজেয়াপ্ত করেছে। সব মিলিয়ে মোট ৮০০ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এরসাথে ২২ কোটির একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সিজ করেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। সাতটি ব্যাঙ্ক আকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

[ আরও পড়ুন ] প্রধানমন্ত্রীর জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ – মালাবার নৌমহড়া

প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট ২০০২-এর ৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বাজেয়াপ্ত সম্পত্তির মধ্যে মুম্বইয়ের একটি হোটেল ও দুটি বাংলো ও পঞ্চগনির সাড়ে তিন একরের একটি জায়গা আছে। এই সম্পত্তিগুলি প্রয়াত ইকবালের স্ত্রী ও দুই সন্তান কিনেছিল বলে জানা যাচ্ছে। মির্চি পরিবারের ওষুধের ব্যবসা আছে। দুবাই ও ইংল্যান্ডে এক চেটিয়া ব্যবসা করে তাদের এই ওষুধের সংস্থা। ইকবাল মির্চির দুই ছেলে, তাদের ব্যবসা কোথায় কোথায় নামে বেনামে রেখেছে তা খতিয়ে দেখছে ইডি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *