Former Indian President Pranab Mukherjee passes away at 85 years of age

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জী না ফেরার দেশে

ভারতবর্ষ

একমাত্র পুত্র অভিজিৎ মুখার্জী এই তথ্য (Pranab Mukherjee passes away) জানান। তিনি গত ৯ই অগস্ট রাতে নিজের দিল্লির বাড়িতে শৌচাগারে পড়ে …

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি শ্রদ্ধেয় প্রণব মুখোপাধ্যায় পরলোকে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ৮৫ বছর। একমাত্র পুত্র অভিজিৎ মুখার্জী এই তথ্য (Pranab Mukherjee passes away) জানান। তিনি গত ৯ই অগস্ট রাতে নিজের দিল্লির বাড়িতে শৌচাগারে পড়ে গিয়েছিলেন । এরপর স্নায়ুঘটিত কিছু সমস্যা দেখা দেয়। চিকিৎসকদের পরামর্শে দ্রুত ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। পরিস্থিতি বুঝে জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর অবস্থার উন্নতি হয়নি। ফুসফুসের সংক্রমণ ছাড়াও কিডনি সমস্যারও চিকিৎসা চলছিল।

গত ১৩ই অগস্ট থেকে তিঁনি গভীর কোমায় চলে যান। প্রণবাবুর ছেলে অভিজিৎ মুখার্জী নিজেই টুইট করে এই সংবাদ জানান আজ সন্ধ্যা ৬টায়।

Former Indian President Pranab Mukherjee passes away at 85 years of age
Former Indian President Pranab Mukherjee passes away at 85 years of age

প্রণবকুমার মুখোপাধ্যায় ১৯৩৫ সালের ১১ই ডিসেম্বর বীরভূম জেলার কীর্ণাহার শহরের কাছে মিরাটি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন ভারতের ত্রয়োদশ রাষ্ট্রপতি। তার সুচারু রাজনৈতিক কর্মজীবন ছয় দশকব্যাপী। আসলে তিনি ছিলেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের দক্ষ প্রবীণ নেতা। বিভিন্ন সময়ে দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রকের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রীর দায়িত্ব সাবলীল ভাবে পালন করেছিলেন। ২০১২ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে প্রণব মুখোপাধ্যায় ছিলেন ভারতের অর্থমন্ত্রী। ১৯৭৩ সালে ইন্দিরা গান্ধীর ক্যাবিনেট মন্ত্রিসভায় স্থান পান। ১৯৮০ থেকে ১৯৮৫ পর্যন্ত তিনি রাজ্যসভার দলনেতাও ছিলেন।

[ আরও পড়ুন ] সুস্থ্য অমিত শাহ – মোদির ‘মন কি বাত’ ডিসলাইকের বন্যা

একজন কলেজশিক্ষক রূপে তিঁনি কর্মজীবন শুরু করেন। পরে তিনি সাংবাদিকের কাজও করেন। মাননীয় প্রণব মুখোপাধ্যায় কর্মজীবনের প্রথম দিকে হাওড়া জেলায় “বাঁকড়া ইসলামিয়া হাইস্কুলে” ২ বছর শিক্ষকতা করেছেন। ১৯৯৫ সালে তিঁনি সার্ক (SAARC) মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেছিলেন।দেশের প্রতি অবদানের জন্য তাঁকে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান পদ্মবিভূষণ ও শ্রেষ্ঠ সাংসদ পুরস্কারে ভূষিত করা হয। ১৯৮৪ সালে, যুক্তরাজ্যের ইউরোমানি পত্রিকার একটি সমীক্ষায় তিনি বিশ্বের শ্রেষ্ঠ পাঁচ অর্থমন্ত্রীর অন্যতম হিসেবে বিবেচিত হন। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *