Indian Food Minister Announces to Stock Food Grains for Six Months

Stock Food Grains: ৬ মাসের রেশন মজুতের ঘোষণা কেন্দ্রের

ভারতবর্ষ

বড় ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান ৷ জানিয়ে দিলেন, রেশন থেকে একবারে ৬ মাসের খাদ্যশস্য (Stock Food Grains) …

একটা ভাইরাস গোটা দেশের পরিস্থিতিতে পাল্টে দিলো। আগামী যে বেশ বিপদের তা আঁচ করা সম্ভব হয়েছে। করোনা নিয়ন্ত্রণে একাধিক সতর্কতার অবলম্বন করা হচ্ছে, এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব। রাস্তাঘাট প্রায় জন শূন্য। বন্ধ স্কুল কলেজ, বন্ধ একাধিক পরিষেবা। এমন পরিস্থিতিতে আগামী দিনে কি হবে তাই নিয়ে ভয়ে এবং আশঙ্কায় গোটা বিশ্ব। ইতিমধ্যেই আক্রান্ত হয়েছে ১৫১ জন। মৃত্যুও হয়েছে ৩ জনের। এই পরিস্থিতিতে বড় ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান৷ জানিয়ে দিলেন, রেশন থেকে একবারে ৬ মাসের খাদ্যশস্য (Stock Food Grains) তুলতে পারা যাবে ৷

কেন্দ্রীয় খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান
কেন্দ্রীয় খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান

আমাদের দেশে ৭৫ কোটি মানুষ গণবণ্টন সিস্টেমের আওতায় ৷ তাঁরা চাইলে ৬ মাসের খাদ্যশস্য একেবারেই তুলে নিতে পারবেন৷ এতদিন যা দু মাস ছিল ৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বুধবার তা বাড়িয়ে ৬ মাস করে দিলেন৷ পঞ্জাব সরকার কয়েক দিন আগেই এই নিয়ম কার্যকর করেছে ৷ রামবিলাস পাসওয়ান জানান,”সরকারের গুদামে যথেষ্ট পরিমাণ খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে। তাই সমস্ত রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে বলা হয়েছে গরিব মানুষ যেন রেশনে একবারে ৬ মাসের খাদ্যশস্য মজুত করতে পারেন সেদিকে নজর রাখতে। আমাদের গুদামে যথেষ্ট পরিমাণ খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে৷ আমরা রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে বলেছি, গরিব মানুষকে রেশনে ৬ মাসের খাদ্যশস্য তুলতে দেওয়া হোক৷”

করোনার চাপে বোর্ডের পরীক্ষা স্থগিত – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন “আপাতত সরকারের গুদামে ৪৩৫ লক্ষ টন উদ্বৃত্ত খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে। যার মধ্যে ২৭২.১৯ লক্ষ টন চাল এবং ১৬২.৭৯ লক্ষ গম রয়েছে।পাসওয়ানের কথায়, আসন্ন এপ্রিল মাসের ক্ষেত্রে গণবন্টন ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজন ১৩৫ লক্ষ টন চাল আর ৭৪.২ লক্ষ টন গম।” জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন অনুসারে দেশের প্রায় ৫০,০০০ রেশন দোকানে ৩ টাকা কিলো চাল, ২ টাকা কিলো গম এবং ১টাকা কিলো হিসেবে দানাশস্য দেওয়া হয়। এই গোটা প্রকল্পের বার্ষিক খরচ প্রায় ১.৪ লক্ষ কোটি টাকা। কিন্তু দেশবাসীকে নিরাপত্তা দিতে এই সিদ্ধান্তকে অনেকেই সাধুবাদ জানিয়েছে।

১-এপ্রিল থেকে দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে এনপিআর – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *