Indian Navy becomes more powerful due to Nilgiri-class frigate or Project 17A

কলকাতাতে তৈরি এই শক্তিশালী ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ

ভারতবর্ষ

আজ সোমবার প্রজেক্ট P-17A (Project 17A) নীলগিরি ক্লাসের রণতরী বা ফ্রিগেট নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে ৷ তিনবছর ধরে ১৯,২৮৯ …

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেশের তিন প্রান্তেই আছে সমুদ্র। সর্বদা সতর্ক রাখতে হয় নৌবাহিনীকে। এর সাথে থাকে যুদ্ধের উত্তাপ। দেশের নৌবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে চায় কেন্দ্র। সেই বিষয়ে এগিয়ে এলো গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড ৷ আজ সোমবার প্রজেক্ট P-17A (Project 17A) নীলগিরি ক্লাসের রণতরী বা ফ্রিগেট নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে ৷ দীর্ঘ তিনবছর ধরে ১৯,২৮৯ কোটি টাকাতে একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মাণ করা হয়েছে এই উচ্চমানের, উন্নততম ও অত্যাধুনিক রণতরী ৷ আজ, এর উদ্বোধন করতে বাংলায় আসছেন চিফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত ৷

Indian Navy becomes more powerful due to Nilgiri-class frigate or Project 17A
Indian Navy becomes more powerful due to Nilgiri-class frigate or Project 17A

আজ সোমবার বেলা ১২ টাতে তার গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডতে আসার কথা ৷ তার সাথে থাকবেন নৌবাহিনীর অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। জানা যাচ্ছে, এই ক্লাসের মোট ৭ টি জাহাজ নির্মান করা হবে কলকাতার GRSE ও মাজাগাও ডকে। এর প্রথম জাহাজটি ২০২২ সালে ভারতীয় নেভিতে যুক্ত হতে চলেছে। ভারতীয় নৌবাহিনীতে এখন তিন ধরণের রণতরী আছে। আকার ও আয়তনের দিক থেকে বড় রণতরী হল ডেসট্রয়ার, দ্বিতীয় ফ্রিগেটস ও তৃতীয় করভেটস ৷

[ আরও পড়ুন ] ‘নয়েজ অফ সাইলেন্স’ NRC – বিপন্ন নাগরিকত্ব এবার পর্দায়

দ্বিতীয় শ্রেণীর ফ্রিগেটস মূলত রসদ নিয়ে যাওয়ার কাজ করে। এছাড়া ক্লোজ রেঞ্জে প্রতিপক্ষের জাহাজ ও সাবমেরিনে আঘাত হানার কাজ করে ৷ ডেসট্রয়ার ক্যাটেগরির রণতরীর সাথে সমুদ্রে রূপ নির্ণয় করে চলার কাজে ব্যবহৃত হয় ৷ ভারতে এই মুহূর্তে ১৩টি ফ্রিগেটস আছে ৷ তবে আজ এই ফ্রিগেটস যুক্ত হলে এর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে ১৪ টিতে ৷

[ আরও পড়ুন ] বাংলা-সহ একাধিক রাজ্যে জারি হাই অ্যালার্ট – নাশকতার ছক !!

তবে ফ্রিগেটস হয় তিনটি ক্লাসের ৷ এক শিবলিক ক্লাস, দ্বিতীয়টি তালবার ক্লাস, আর তৃতীয় ব্রহ্মপুত্র ক্লাস ৷ গতবছর একশোটি যুদ্ধজাহাজ বানিয়েছে গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড। দেশের অন্যতম জাহাজ বন্দর ও জাহাজ প্রস্তুতকারী সংস্থা যাত্রা শুরু করে ১৯৬১ সালে। যে সংস্থা একসময় একটি রণতরী এম কে – ১ তৈরি করে। সেই সংস্থাই ভারতীয় নৌসেনার জন্য ১০০ টি জাহাজ বানিয়ে ফেলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *