Indian PM Narendra Modi Announces COVID-19 Special Economic Package Worth Rs 20 Lakh

মোদির ২০ লক্ষ কোটি – মমতা ভাঙলেন রেড জোনকে

ভারতবর্ষ

আজ জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আত্মনির্ভর ভারত গড়ার ডাক দেওয়ার সাথে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের (Economic Package) ঘোষণা করেন।

প্রতীক্ষার অবসান। আজ রাত ৮ টাতে প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন। তিনি আত্মনির্ভর ভারত গড়ার ডাক দেওয়ার সাথে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের Economic Package) ঘোষণা করেন। তিনি জানান, ” আজকের এই আর্থিক প্যাকেজ আত্মনির্ভর ভারতকে আগামীর দিকে এগিয়ে দেবে। সমস্ত প্যাকেজ একত্রিত করলে ২০ লক্ষ কোটি টাকার মতো হবে। এটাই দেশের জিডিপির প্রায় ১০ শতাংশ। এই ২০২০ সালে ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ আত্মনির্ভর ভারত অভিযানকে নতুন গতি দেবে।’ করোনা থেকে মুক্তি যে এক্ষুনি নেই সেটা স্পষ্ট, বিশেষজ্ঞদেরও একই মত । আর ঠিক তাই লোকডাউন ৪ আসতে চলেছে ১৮ই মে থেকে । তবে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজই আভাস দেন ।

লোকাল কোম্পানির জন্য ভোকাল:

তবে এই প্যাকেজে জমি-শ্রমিকদের উপরই বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। দেশের মদ্ধবিত্তরাও এই আর্থিক প্যাকেজ থেকে বিপুল পরিমান সাহায্য পাবে বলে তিনি মনে করেন । প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, দেশের স্বার্থে আমাদের এক হওয়া উচিত । বিশেষ করে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে লোকাল কোম্পানির প্রোডাক্টের জন্য ভোকাল হতে বলা হয় । অর্থাৎ, দেশীয় কোম্পানিগুলির প্রোডাক্ট কিনতে বলা হচ্ছে বেশি করে । এর ফলে সরকারের ইনকাম বৃদ্ধি হবে । মোদী সরকার দেশের মোট জিডিপির ১০% করোনা ত্রাণ প্যাকেজ হিসাবে ঘোষণা করেছে। অন্যদিকে বেকারত্বের হার সর্বোচ্চ । আর সাথে আছে বন্যার ভ্রূকুটি ।

লাদাখ সীমান্তে চীনা কপ্টার – পাকিস্তান যুদ্ধের জিগির তুললোআরও জানতে ক্লিক করুন …

মমতা ব্যানার্জীর ঘোষণা:

এদিকে আজ নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে গ্রিন জোনে বাস-ট্যাক্সি চালুর বিষয় আগেই জানিয়েছিল নবান্ন। আজ অরেঞ্জ এবং রেড জোনে কিছু কাজ শুরু করার ইঙ্গিত দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। আজ বিকালে তিনি জানান, ” রাজ্যের রেড জোনকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এই তিন ভাগ হল এ, বি এবং সি। ‘এ’ চিহ্নিত এলাকায় একেবারেই ছাড় দেওয়া হবে না। তবে ‘বি’ জোনে সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে ছাড় দেওয়া হবে। আর ‘সি’ জোনে প্রায় সব কিছুতেই ছাড় দেওয়া হবে।”

রাম মন্দির নির্মাণের টাকা দিলে কর ছাড় – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কোন কোন ক্ষেত্রে ছাড় ?

মোদী জানান, “দেশের ১৩০ কোটি মানুষকে আত্মনির্ভর হতে হবে। আমরা পাঁচটা পিলারের মধ্যে দাঁড়িয়ে আছি – অর্থনীতি, পরিকাঠামো, সিস্টেম, গণতন্ত্র আর মস্তিষ্ক। আমাদের অসীম ক্ষমতা।” এদিকে রাজ্যে জুয়েলারি, ইলেকট্রিক্যাল গুডস, ইলেকট্রনিক্স, মোবাইল রিপেরিয়ারিং, চার্জিং প্রভৃতি দোকানগুলি খোলা যাবে। বেলা ১২টা থেকে ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে দোকানগুলি। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সিনেমা-সিরিয়ালের শুটিংয়ের ক্ষেত্রে এডিটিং-ডাবিং চালু হবে। তবে সিনেমা ও সিরিয়ালের নতুন শুটিং একেবারেই নয়। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর SGX Nifty -তে যে হালচাল দেখা যায়, তাতে স্পষ্ট লগ্নিকারীরা কিন্তু খুশি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *