Kashmir Conflict in UN between India and Pakistan

রাষ্ট্রসঙ্ঘে কাশ্মীর নিয়ে লড়াই – পাকিস্তানে ফিরলো দুই কর্মী

ভারতবর্ষ

রাতভোর গুলিতে লড়াই চলছে। এরই মাঝে রাষ্ট্রসংঘে কাশ্মীর প্রসঙ্গ (Kashmir Conflict in UN) পৌছালো। রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার পরিষদের ৪৩ তম অধিবেশন।

ভারত ও পাকিস্থানের সম্পর্ক ক্রমশ তলানিতে ঠেকছে। প্রতিদিন সীমান্তে উত্তেজনা থাকছে। রাতভোর গুলিতে লড়াই চলছে। এরই মাঝে রাষ্ট্রসংঘে কাশ্মীর প্রসঙ্গ (Kashmir Conflict in UN) পৌছালো। রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার পরিষদের ৪৩ তম অধিবেশন। প্রথমেই বিবাদ-বিতর্ক শুরু করেছিল পাকিস্তান। তাদের প্রধান বিষয়টি সেই কাশ্মীর। তারা জানাচ্ছে ,অনুচ্ছেদ ৩৭০ প্রত্যাহারে লঙ্ঘিত হচ্ছে কাশ্মীরিদের মানবাধিকার।

UNGC said Kashmir conflict impacted hugely on Kashmiri childrens
UNGC said Kashmir conflict impacted hugely on Kashmiri childrens

এই অভিযোগের যোগ্য জবাব দেয় দিল্লি। তাদেরকে নিজের দেশ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে বলে ভারত। পাকিস্তানে মানবাধিকার লঙ্ঘন একটা রীতি হয়ে গেছে বলে জানান সেনথিল কুমার। জট কাটিয়ে ফিরলো এসেছে ভারতীয় দূতাবাসের দুই কর্মী। তাদের মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তানের পুলিশ। পুলিশ হেফাজতে থাকা দুই দূতাবাস কর্মীর মুখে ও হাতে আঘাতের চিহ্ন মিলেছে। তাঁদের মারধর করা হয়েছে।

লাদাখে চীন সেনার হাতে নিহত কর্নেল ও ২ জওয়ান – আরও জানতে ক্লিক করুন …

ভারতীয় হাইকমিশন অফিস থেকে দু কিলোমিটার দূরে ইসলামাবাদের সেক্রেটারিয়েট থানা। সেখানে দুজনকে লক আপে বসিয়ে জেরা করেছে পাকিস্তানের পুলিশ। সুস্থ থাকলেও, ধকল গিয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে। ঠিক দু’সপ্তাহ আগে দিল্লির পাক দূতাবাসের দুই কর্মী আবিদ হুসেন ও মহম্মদ তাহিরের বিরুদ্ধে চরবৃত্তির অভিযোগ আনে। তাই তাদেরকে ভারত ছাড়তে বলেছিল দিল্লি।

নেপাল সীমান্তে বাড়াচ্ছে ১০০ সেনা চৌকি – আরও জানতে ক্লিক করুন …

গতকাল ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক পাক ডেপুটি হাই কমিশনার সইদ হায়দার শাহকে সাউথ ব্লকে ডাকে। তার কাছ থেকে দূতাবাস কর্মীদের গ্রেপ্তার বা অপহরণ করার বিষয় জন্যে চাওয়া হয়। কূটনৈতিক বিষয় না মেনে, জেনেভা চুক্তি লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান। বারবার মিথ্যে তথ্য পরিবেশন করে ভুল পথে পরিচালনা করার চেষ্টা করেছে। এটা দুর্ভাগ্যের।

দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র দেশ পাকিস্তান, যেখানে গণহত্যায় রাষ্ট্র এগিয়ে আসে। কয়েকদিন আগে সিন্ধে দুই হিন্দু মেয়ে, লাহোরে এক খ্রিস্টান মেয়ে, চালেকিতে এক আহমাদি মহিলা, খারিপুরে দুই অধ্যাপককে মারা হয়েছে। ২০১৫ সালের পর থেকে ৬৫ জন রূপান্তরকামীর হত্যা হয়েছে। তবু পাকিস্তানের ভারত বিদ্বেষ থামছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *