Mumbai local trains resume services and local trains of Howrah division will operate soon

আজ মুম্বইতে লোকাল ট্রেন – শীঘ্রই হাওড়া ডিভিশনেও চালু

ভারতবর্ষ

সংক্রমণের তালিকায় মহারাষ্ট্র সবথেকে এগিয়ে। অথচ সেখানেই ছুটবে লোকের ট্রেন (Mumbai local trains)। আজ মুম্বইতে চালু হলো লোকাল ট্রেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন: লকডাউন ও আনলক পর্ব দেশ জুড়েই চলছে। পাল্লা দিয়ে আতংকের পারদ বাড়ছে। ক্রমশ অনেক দেশকে পেছনে ফেলে ভারত বিপর্যয়ের শীর্ষে পৌঁছাচ্ছে। সংক্রমণের তালিকায় মহারাষ্ট্র সবথেকে এগিয়ে। অথচ সেখানেই ছুটবে লোকের ট্রেন (Mumbai local trains)। আজ মুম্বাইতে চালু হলো লোকাল ট্রেন।

তবে শুধুমাত্র অত্যাব্যশকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত মানুষরাই ট্রেনে উঠতে পারবেন। ওয়েস্টার্ন রেলওয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে একথা। পাশাপাশি সাধারণ মানুষ যাতে স্টেশন চত্বরে ভিড় না করার আবেদন করা হয়েছে। রাজ্য সরকার যাদের অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বলে চিহ্নিত করবে শুধু তারাই এই ট্রেনে উঠবে।

Local trains in Mumbai begins to operate from today
Local trains in Mumbai begins to operate from today

সাধারণত একটি লোকাল ট্রেন যেতে পারেন ১২০০ যাত্রী। কিন্তু এই লোকাল ট্রেনে নেওয়া হবে মাত্র ৭০০ যাত্রী। মুম্বাইয়ে অত্যাবশ্যক পরিষেবার জড়িত ১ লাখ ২৫ হাজার রাজ্য সরকারি কর্মী উপকৃত হবেন। শুধু পরিচয়পত্র দেখিয়ে স্টেশনে ঢুকতে পারবেন যাত্রীরা। পশ্চিম রেল এখন ৭৩ জোড়া ট্রেন চালাবে।

নেপাল পুলিশের গুলিতে মৃত এক ভারতীয়, আহত চার – আরও জানতে ক্লিক করুন …

এরমধ্যে ৮টি ভিরার ও দাহানু রোড স্টেশনর মধ্যে যাতয়াত করবে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে পাঁচটা থেকে ১৫ মিনিট অন্তর চলবে এই লোকাল ট্রেন। ২০২০ প্রোটোকল এবং এসওপি মেনে শহরতলির পরিষেবাগুলি পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মাইনে না দেওয়ায় জুলাই পর্যন্ত শাস্তি নয়: সুপ্রিম কোর্ট – আরও জানতে ক্লিক করুন …

মুম্বাইয়ের পর সম্ভাবনা আছে পশ্চিমবঙ্গের। বাস-ট্রামের পর এ বার লোকাল ট্রেন চলতে পারে। আনলক-১ ঘোষণার পরই খুলেছে অফিস, কলকারখানা, বাজার, শপিংমল, রেস্তরাঁ, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। অথচ ঠিক সময়ে অফিস যেতে বাস পেতে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের। অফিস টাইমে প্রচন্ড ভিড়ে দূরত্ববিধি থাকছে না।

জেলার কর্মজীবীরা আরও সমস্যায় পড়ছেন। তাই শীঘ্রই হাওড়া ডিভিশনের লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু হতে পারে। প্রাথমিক পর্যায়ে হাওড়া ডিভিশনের সব স্টেশনে সুরক্ষাবিধি সাজাতে চাইছে রেল। ভারপ্রাপ্ত অফিসারদের ১০ দিনের মধ্যে রিপোর্ট তৈরি করতে বলা হয়েছে। তা দেখেই ট্রেন চলার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রেলদুপ্তর ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *