NEET and JEE exam 2020 matter reaches supreme court

সুপ্রিম কোর্টে নিট ও জেইই – সাথে মমতা, সোনিয়া ও থুনবার্গ

ভারতবর্ষ

ভাইরাস আবহে পরীক্ষাতে (NEET and JEE exam 2020) বসা কঠিন বলে একপক্ষ সরব হয়েছেন। অন্যদিকে নিয়ম মেনে পরীক্ষার পক্ষে আছেন শাসকগোষ্ঠী।

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেশে জয়েন্ট এন্ট্রান্স-সহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা নিয়ে জট তৈরী হয়েছে। ভাইরাস আবহে পরীক্ষাতে (NEET and JEE exam 2020) বসা কঠিন বলে একপক্ষ সরব হয়েছেন। অন্যদিকে নিয়ম মেনে পরীক্ষার পক্ষে আছেন শাসকগোষ্ঠী। বিরোধিতার আসরে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী ও তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে ডাকা হয় ভার্চুয়াল বৈঠক। ফলে বাংলায় কংগ্রেস ও বামেদের সম্ভাব্য জোট নিয়ে কিছু সংশয় তৈরী হয়েছে। এদিকে পাঞ্জাব অন্য রাজ্যগুলিকে সঙ্গে নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের মত পুনর্বিবেচনার জন্য যৌথ আইনি আবেদনের দাবি জানানো হয়েছে।

Greta Thunberg on NEET and JEE exam 2020
Greta Thunberg on NEET and JEE exam 2020

ভাইরাস আবহে নিট ও জেইই পিছিয়ে দেওয়ার আবেদনে দেশের পরীক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছে জনপ্রিয় পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ। তিনি মনে করেন, এভাবে পরীক্ষা হলে পরীক্ষার্থীদের অসুবিধা হবে। শিক্ষার পরিকাঠামো, পদ্ধতি, শিক্ষার ধরন নিয়ে ভারত আর সুইডেনের মিল নেই। তবু পড়ুয়াদের সমস্যা মানে সুবিশাল সমস্যা। সে ভারতই হোক বা সুইডেন। পরিস্থিতি বুঝে, পরিবেশ কর্মী থেকে পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়িয়েছেন গ্রেটা।

[ আরও পড়ুন ] লাদাখের সব আবহাওয়ায় রাস্তা – বসানো হলো নতুন মিসাইল

গতকালের বুধবারের বৈঠকে সনিয়া-মমতার সম্পর্কে নতুন করে ঘনিষ্ঠতা লক্ষ করেছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। মমতা ব্যানার্জী জানান, ‘‘সুপ্রিম কোর্টের প্রতি আমাদের পুরোপুরি আস্থা আছে। প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টকে কেন্দ্রীয় সরকার আবেদন করুক পরীক্ষা পিছনোর। দরকারে রাজ্যগুলো একসঙ্গে পরীক্ষা পিছনোর আর্জি জানাতে পারে। আমরা সর্বোচ্চ আদালতের কাছে এই আবেদন করব।’’ আজ, বৃহস্পতিবারই সুপ্রিমকোর্টে আবেদন দাখিল করার চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *