Police Arrested 3 Teachers of South Kashmir Madrasa in Shopian District

কাশ্মীরের মাদ্রাসা আতংকের আঁতুরঘর – গ্রেফতার ৩ শিক্ষক

ভারতবর্ষ

দক্ষিণ কাশ্মীরের সোফিয়া জেলার একটি মাদ্রাসা (Kashmir Madrasa in Shopian) সেনাদের নজরে ছিল। গত কয়েকদিন ধরে পুলিস ও নিরাপত্তা …

নিজস্ব সংবাদদাতা: কাশ্মীর মানেই সৌন্দর্যের তীর্থক্ষেত্র। আর এরই মধ্যে লুকিয়ে আছে আতংকের পরিবেশ। মানুষকে বিপদের মধ্যে ঠেলে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আর সেই কুকাজে রত আছেন মাদ্রাসার কিছু অন্যধারার শিক্ষকরা। তাদের কাছে পবিত্র শিক্ষা দানের থেকে প্রধান বিষয় হয়ে উঠেছে অস্ত্রধরা মানুষ তৈরী করা। দক্ষিণ কাশ্মীরের সোফিয়া জেলার একটি মাদ্রাসা (Kashmir Madrasa in Shopian) সেনাদের নজরে ছিল। গত কয়েকদিন ধরে পুলিস ও নিরাপত্তা বাহিনী গোপনে তথ্য সংগ্রহ করে।

Kashmir IGP Vijay Kumar
Kashmir IGP Vijay Kumar

জানা যায়, সেই বিখ্যাত মাদ্রাসা থেকে হিজবুল মুজাহিদীন, লস্কর-ই-তৈবার মতো কুখ্যাত সংগঠনে সম্প্রতি ১৩ জন ছাত্রকে ঢোকানো হয়েছে। যা দেশের পক্ষে খুবই বিপদজনক। গত বছর পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে আক্রমণের সাথে যুক্ত সাজ্জাদ ভাট এই মাদ্রাসাটি আসে। পুলওয়ামা, কুলগাঁও, সোপিয়ার মতো এলাকা থেকে বহু ছাত্র ওই মাদ্রাসায় পড়তে আসে । এছাড়া উত্তরপ্রদেশ, কেরালা, তেলেঙ্গানার বহু ছাত্রও কাশ্মীরের ওই মাদ্রাসায় পড়াশোনা করতে আসে।

[ আরও পড়ুন ] কোর্টে হালাল নিষিদ্ধের আর্জি খারিজ – গরুর আধার কার্ড!

ফলে গোটা দেশের নেটওর্য়াক তৈরী করতে সুবিধাই হয়। কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার বলেন, সিরাজুল উল ইমাম সাহেব নামের ওই মাদ্রাসা আসলে বেপরোয়া সংগঠনের কারখানা হয়ে উঠেছিল। জামাতে ইসলামী সংগঠনের সঙ্গে ওই মাদ্রাসার কয়েকজন শিক্ষকের নিবিড় যোগাযোগ ছিল। তাই ওই মাদ্রাসা থেকে তিনজন শিক্ষককে আটক করেছে পুলিস। এছাড়া বেশ কিছু স্কুলশিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সতর্ক আছে দেশের গোয়েন্দা দপ্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *