prime-minister-narendra-modi-to-address-the-whole-nation-at-8-pm-today

মোদী আজ রাত ৮টায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন

ভারতবর্ষ

আবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ (Modi to address the whole nation) দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ রাত ৮ টা নাগাদ তিনি জাতির উদ্দেশে ভাষণ …

দেশের সব মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে কথা বলেছেন। গোটা দেশের সকল প্রান্তের তথ্য এসেছে তার কাছে। লকডাউনের তৃতীয় পর্ব শেষ হওয়ার পথে। একই সাথে বাড়তেই আছে সংক্রমণের ও মৃত্যুর সংখ্যা। গোটা দেশ তাকিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দিকে। আবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ (Modi to address the whole nation) দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ রাত ৮ টা নাগাদ তিনি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন। তৃতীয় দফার লকডাউন শেষ হচ্ছে আগামী ১৭ই মে। তার আগে প্রধানমন্ত্রীর এই ভাষণ তাৎপর্যপূর্ণ হতে পারেই বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সূত্রের খবর :

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায়, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, ‘আজ রাত আটটায় জাতির উদ্দেশ্য ভাষণ দেবেন শ্রী নরেন্দ্র মোদি।’ তবে তাঁর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে স্পষ্ট কোনও ধারণা পাওয়া যায়নি। করোনা মোকাবিলায় পরবর্তী রণকৌশল নিয়ে কথা বলতে পারেন। যদিও আগের বৈঠকে লকডাউন আরও বাড়ানোর ইঙ্গিত মিলেছে। লোকাল ট্রেন, বাস, মেট্রোর মতো গণ পরিবহণ ব্যবস্থা কি চলতে শুরু করবে? মানুষ কি কাজে যোগ দিতে পারবে? ইতিমধ্যে বিশেষজ্ঞরা বলতে শুরু করেছেন, আমাদের করোনাকে সঙ্গে নিয়েই বাঁচতে হবে।

উত্তর সিকিমের সীমান্তে চীন সেনাদের সাথে হাতাহাতি – আরও জানতে ক্লিক করুন …

লকডাউনের ভবিষ্যৎ:

আজ মঙ্গলবার দেশের লকডাউন ৪৯ দিনে পা দিয়েছে। একটানা ৪৯ দিনের লকডাউনে করোনা সংক্রমণের গতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয় নি। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন বাড়ার সম্ভাবনা বেশি বলে মনে করছে অনেকে। মনে করা হচ্ছে, কেন্দ্র লকডাউনের ভবিষ্যৎ নিয়ে কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। জানা যাচ্ছে, মুখ্যমন্ত্রীদের বড় অংশই কিন্তু লকডাউন বাড়িয়ে যাওয়ার পক্ষে সওয়াল করেন। প্রধানমন্ত্রী রাজ্যগুলির কাছে লকডাউন বিষয়ে মতামত লিখিত আকারে চেয়েছেন। সবটা পরিষ্কার হবে আজ রাতে।

রাম মন্দির নির্মাণের টাকা দিলে কর ছাড় – আরও জানতে ক্লিক করুন …

দেশের অর্থনৈতিক দুর্দশা:

দেশের অর্থনীতির হাল বেহাল। অন্যদিকে শহরের বস্তি এলাকার ভূকমারী, সাথে বেকারত্বের চরম সীমা সরকারের চিন্তার বিষয় । দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক থেকে ১২ লক্ষ কোটি টাকা লোন নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার । কিন্তু তার বিতরণ কিভাবে হবে তা এখনো স্পষ্ট নয় । সরকার আবার মেতে উঠেছে বিদেশী পুঁজি আকর্ষণে। করোনা ভাইরাস পরবর্তী সময়ে চীন থেকে বহু কোম্পানি ভারতে আসতে চায় । আর তাই সরকার একটি রাজ্যের সমান ল্যান্ড ব্যাংকও প্রস্তুত করে ফেলেছে । এবার পালা কর ছাড়ের ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *