RJD Demands Release of Lalu Prasad Yadav from Jail By Showing Safety Reasons due to COVID-19 Outbreak

Lalu Prasad Yadav: কোরোনার দোহাই দিয়ে লালু প্রসাদের মুক্তি?

ভারতবর্ষ

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ১৪ বছরের কারাদণ্ডের সাজা ভোগ করছেন প্রাক্তন রেলমন্ত্রী (Lalu Prasad Yadav)। ২০১৭ সালের শেষদিক থেকে রাঁচি …

কারাগার থেকে মুক্তির একটা পথ লালুপ্রসাদের সামনে এলো। দীর্ঘদির তিনি প্রচারের বাইরে। রাজনীতি থেকে অনেকটা সরে যেতে বাধ্য হয়েছেন। কিন্তু এই সংশোধানাগারে ভাইরাসের আতঙ্ক তৈরী হয়েছে। পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ১৪ বছরের কারাদণ্ডের সাজা ভোগ করছেন প্রাক্তন রেলমন্ত্রী (Lalu Prasad Yadav)। ২০১৭ সালের শেষদিক থেকে রাঁচি সেন্ট্রাল জেলেই আছেন তিনি। অসুস্থ্যতার জন্য তিনি এখন রাঁচির রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে ভর্তি আছেন।

মিড-ডে মিলের বরাদ্দ বাড়াল কেন্দ্র – আরও জানতে ক্লিক করুন …

হসপিটালে লালু প্রাসাদ যাদব:

কিন্তু সেখানে চিকিত্‍‌সাধীন এক রোগীর শরীরে মিলল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। এই নামি হাসপাতালেরই একই চিকিৎসকের অধীনে অন্য কিছু শারিরীক সমস্যা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন বর্ষীয়ান লালুপ্রসাদ। এরপর সংক্রমনের খবর সামনে আসতেই দ্রুত কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয় তাকে। ওই হাসপাতালের সমস্ত স্টাফ এবং চিকিৎসকদের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। লালুর চিকিৎসক ডাঃ উমেশ প্রসাদ-সহ হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসককে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হচ্ছে।

‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপ বাধ্যতামূলক – আরও জানতে ক্লিক করুন …

লালুকে জেল থেকে বের করার দাবি:

বাবার শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন তাঁর পুত্র তথা আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। এই পরিস্থিতিতে বাবার জন্য় যাতে সবরকম সাবধানতা মেনে চলা হয় সে ব্য়াপারে প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি। তবে ঝাড়খণ্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বন্না গুপ্ত জানিয়েছেন, লালুপ্রসাদ সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং সংক্রমণের কোনও সম্ভাবনা নেই। তা সত্বেও সুযোগ বুঝে লালুকে জেল থেকে বের করার দাবিতে সরব হয়েছে আরজেডি। এদিকে লালুপ্রসাদের মতো ভিআইপিকে হাসপাতালে রাখা ঠিক নয়, এই দাবি এনে লালুকে প্যারোলে মুক্তি দেওয়ার দাবি তুলছেন তেজস্বী যাদব। ভাইরাস কিছু মানুষের জন্য যথেষ্ট কল্যাণের।

মৃত্যু হতেই এশিয়ার বৃহত্তম “সবজি মাণ্ডি” বন্ধ – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *