Terror camps are active in PoK again

কাশ্মীরে আতংকের সকল লঞ্চপ্যাড সক্রিয়

ভারতবর্ষ

বিএসএফের ইনস্পেক্টর জেনারেল রাজেশ মিশ্র জানান, পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে সব লঞ্চপ্যাড (Terror camps in PoK) এখন সক্রিয় …

নিজস্ব সংবাদদাতা: পাক সীমান্ত চরম অস্বস্তিতে আছে। প্রায় প্রতিদিনই সেখানে আন্তর্জাতিক নিয়ম লঙ্ঘন হচ্ছে। পাক সেনা ও আতংকের বাহিনী গুলি ছুড়ছে ভারতে। সাম্প্রতিক কালে নিয়ন্ত্রণরেখার সংঘর্ষে শহিদ হয়েছেন একাধিক সেনা। বিএসএফের ইনস্পেক্টর জেনারেল রাজেশ মিশ্র জানান, পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে সব লঞ্চপ্যাড (Terror camps in PoK) এখন সক্রিয় আছে। কমবেশি ৩০০ আতংকের বাহিন। কাশ্মীরে অনুপ্রবেশের জন্য তৈরি আছে। এই শীতে তুষারপাত শুরুর আগে তাদের অস্ত্রসহ অনুপ্রবেশ ঘটাতে চাইছে পাকিস্তান।

Terror camps are active in PoK again
Terror camps are active in PoK again

গত ১৩ই নভেম্বর, কাশ্মীরের বিভিন্ন সেক্টরে বিনা কারণে গুলি ও গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান। পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি জানান, সে দেশের খাইবার-পাখতুনখোয়া ও গিলগিট-বালটিস্তানে সন্ত্রাসে ভারতীয় মদতের প্রমাণ তারা পেয়েছেন। আর সেই প্রমাণ রাষ্ট্রপুঞ্জে পেশ করা হবে। এরপর ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, এই সব ভুয়ো তথ্য, আন্তর্জাতিক দরবারে গুরুত্ব পাবে না। সীমান্তপারের উস্কানিতে পাক মদতের তথ্য গোটা বিশ্ব জানে। বিশ্বের একাদিক হানার সাথে পাক-যোগের প্রমাণ মিলেছে।

[ আরও পড়ুন ]  রাজধানী রক্ষা পেলো – দিল্লিতে গ্রেপ্তার ২ জইশ

কিছুদিন আগেই ভারতীয় সেনার আক্রমণে, ১১ জন পাক সেনা মারা গিয়েছেও ১৬ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা যথেষ্ট আশঙ্কাজনক। আগামীতে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গুরেজ ও উরি সেক্টরে হামলা চালালে, পাকিস্তানকে পাল্টা আক্রমণের মুখে পড়তে হবে। মানবাধিকার সংস্থাগুলিকে, উত্তর কাশ্মীর অঞ্চলে পাকিস্তানের তীব্র গোলাগুলিতে সাধারণ মানুষ ও সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি লক্ষ্য রাখতে হবে। যদিও সাংবাদিক বৈঠক ডেকে ভারতকে ফাঁপা চাপে ফেলার দিকে এগিয়েছে পাকিস্তান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *