United Nations and US shows concern over India China border violence

লাদাখ সংঘর্ষে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রপুঞ্জ – আমেরিকা, ২০জন সেনা নিহত

ভারতবর্ষ

সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দাদের সুরক্ষায় সতর্কতা। এই পরিস্থিতিতে (India China border violence) শান্তিপূর্ণভাবে এই সমাধানের পথ খোঁজার পরামর্শ …

নিজস্ব প্রতিবেদন: চীন ভারতের সীমান্ত পরিস্থিতি জটিল (India China border violence) হয়ে উঠলো। একাধিক বৈঠক ও আলোচনাতেও সুফল এলো না। বিশ্ব জুড়ে ভাইরাসের সমস্যাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না চীন। উত্তরের গালওয়ান উপত্যকায় ড্রাগন বাহিনীর হামলাতে শহিদ অন্তত ২০জন সেনা। ভারতীয় সেনার জবাবে খতম হয়েছে ৪৩ জন চীনের সৈনিক। চীন তাদের হেলিকপ্টার নিয়ন্ত্রণরেখার এ-পার থেকে তুলে নিয়ে গিয়েছে ।

৩ নয় কমকরে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত লাদাখে, চীনের ৪৩ নিহত – আরও জানতে ক্লিক করুন …

যদিও প্রাথমিক ভাবে এক কর্নেল-সহ তিন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর কথা বলা হয়। ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে জানানো হয়, গুরুতর আহত ১৭ জন সেনা প্রবল ঠান্ডাতে মারা গিয়েছেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় শান্তি ফেরানোর জন্য সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চালাচ্ছে দুই দেশ।

United Nations and US shows concern over India China border violence
United Nations and US shows concern over India China border violence

লাদাখে ভারত ও চীন সংঘর্ষে উদ্বে প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিবেরপক্ষ থেকে জানানো হয় ,“ভারত-চীন দু’দেশকেই সংযত থাকার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। দু’দেশই উত্তেজনা কমাতে বেশ উদ্যোগী হয়েছে। এই প্রচেষ্টা সন্তোষজনক।” আমেরিকা বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে , “লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল এর পরিস্থিতি এখন কী অবস্থায় আছে , সেদিকে আমরা নিবিড় ভাবে নজর রাখছি।”

হিমাচলপ্রদেশে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। চীনের সীমান্ত লাগোয়া কিন্নৌর, লাহুল-স্পিতিতে সতর্কতা জারি করেছে প্রশাসন। সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দাদের সুরক্ষায় সতর্কতামূলক পদক্ষেপ করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে শান্তিপূর্ণভাবে এই সমাধানের পথ খোঁজার পরামর্শ দিয়েছে আমেরিকা।

রাষ্ট্রসঙ্ঘে কাশ্মীর নিয়ে লড়াই – পাকিস্তানে ফিরলো দুই কর্মী – আরও জানতে ক্লিক করুন …

লাদাখের এই সংঘর্ষে শহিদ হলেন বাংলার এক তরুণ। বীরভূমের মহম্মদবাজার থানার ভুতুড়া গ্রামের বাসিন্দা রাজেশ ওরাংয়ের মৃত্যু হয়েছে। স্নাতক পাশ করার আগেই সেনাবাহিনীর চাকরিতে যোগ দেন। ২০১৫ সালে ১৪৫ বিহার রেজিমেন্টে যোগ দিয়েছিলেন এই রাজেশ। সপ্তাহ দুয়েক আগে শেষবার বাড়ির সাথে ফোনে কথা বলেন তিনি। মাত্র ২৫ বছর বয়সেই দেশের কাজে প্রাণ দিতে হল।

সোমবার রাতে গালোয়ান উপত্যকায় ভারতীয় সেনার উপর আক্রমণ চালায় চীন সেনা। প্রথমে যে তিন ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয় তাঁরা হলেন, কর্নেল বি সন্তোষ বাবু, হাবিলদার কে পাঝানি ও কুন্দন ওঝা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *