Body Heat Reduce in Home

এই তীব্র গরম থেকে বাঁচার উপায় জেনে নেওয়া যাক

লাইফস্টাইল

বাতাসে আদ্রতা বেশি থাকায় কয়েকদিন ধরে তীব্র গরম অনুভূত (Body Heat) বাড়ার সাথে সাথে মানুষের অসুস্থ হওয়ার প্রবণতাও বাড়তে থাকে।

প্রচণ্ড গরমে অস্থির (Body Heat) হয়ে উঠেছে চারপাশ। বৃষ্টির দেখা না থাকায় আরো বেশি ভ্যাপসা হয়ে উঠেছে পরিবেশ। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাপমাত্রার পারদ। বিশেষ করে ঢাকায় বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বাড়ছে । ঘাম কোন ভাবেই আটকানো যাচ্ছে না।

ফলে একেবারেই হাঁসফাঁস অবস্থা। বাতাসে আদ্রতা বেশি থাকায় কয়েকদিন ধরে তীব্র গরম অনুভূত হচ্ছে। গরম বাড়ার সাথে মানুষের অসুস্থ হওয়ার প্রবণতাও বাড়তে থাকে। এই অবস্থায় তৈরি রাখতে হবে নিজেকে। কীভাবে সুস্থ থাকবেন জেনে নেওয়া যাক কিছু উপায়।

কীভাবে সুস্থ থাকবেন কিছু উপায়।

Best Summer Fruits
Best Summer Fruits

১. রোদ থেকে এসেই সঙ্গে সঙ্গে ঠাণ্ডা জল একেবারেই খাবেন না। মশলাদার খাবার এড়িয়ে যান। অতিরিক্ত চা, কফি পান করবেন না।


২. বাইরে রোদে বার হওয়ার আগে বেশি প্রসাধনী ব্যবহার করবেন না। সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে শিখুন। অবশ্যই বেরোনোর সময়ে ব্যাগে জলের বোতল রাখুন। আর অবশ্যই ছাতা, টুপি রাখুন।

Metabolism: শরীরের প্রয়োজনীয় বিপাকক্রিয়া কীভাবে বাড়াবেন?আরও জানতে ক্লিক করুন …


৩. এই প্রখর গরমে তেল-মশলা বেশি খাওয়া একদম উচিৎ নয় ৷ হালকা রান্না খেতে হবে ৷ রাস্তার কাটা ফল বা লেবুর রস একেবারেই সুরক্ষিত নয় ৷ বিশুদ্ধ জল খেতে হবে প্রচুর পরিমাণে৷ দিনে অন্তত ৩.৫ থেকে ৪ লিটার জল খান ৷


৪. ফলের মধ্যে শসা ভিটামিন এবং মিনারেলস পরিপূর্ণ একটি সবজি। শসার ৯৬ শতাংশ জল। শসা কেবল শরীরকে ঠাণ্ডাই রাখে না, সতেজ অনুভূতিও দেয়। সাথে ডাবের জল — এর মধ্যে রয়েছে প্রাকৃতিক ইলেক্ট্রোলাইট। এটি শরীরকে আর্দ্র রাখতে কাজ করে।

স্তন ক্যানসার ধরবে ‘স্মার্ট-ব্রা’! – আরও জানতে ক্লিক করুন …


৫. তরমুজ এমন একটি খাবার, এটি কেবল গরমে পাওয়া যায়। এটি শরীরকে ঠাণ্ডা রাখে। এর মধ্যে রয়েছে পানীয় উপাদান।


৬. কমিয়ে আনুন শারীরিক পরিশ্রম। এই সময়টাতে বেশি ব্যায়াম করার প্রয়োজন নেই। এতে শরীরের তাপমাত্রা বাড়বে। খেয়াল রাখবেন ব্যায়াম যেন সীমিত পরিমাণে থাকে।


৭. গরমে দিনে একাধিকবার স্নান করতে পারেন। এতে ফ্রেশ অনুভূত হবে।


৮. বেশি রাত করে ঘুমোবেন না। সকালেও তাড়াতাড়ি উঠুন। আর রাতে শোবার আগে একেবারেই মদ্যপান করবেন না।

মাছি তাড়ানোর সহজ প্রাকৃতিক উপায় – আরও জানতে ক্লিক করুন …


৯. গরমের সময় খোলামেলা জুতা পরা উচিত, যাতে পায়ে বাতাস চলাচল করতে পারে। কাপড় বা সিনথেটিক বাদ দিয়ে চামড়ার জুতা হলে ভালো। কারণ এতে গরম কম লাগে।


১০. প্রচণ্ড গরমে শরীরের তাপ নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা নষ্ট হয়ে তাপমাত্রা বেড়ে গেলে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হতে পারে। ফলে মাংসপেশি ব্যথা, দুর্বল লাগা ও প্রচণ্ড পিপাসা হওয়া, দ্রুত শ্বাস-প্রশ্বাস, মাথাব্যথা, মাথা ঝিমঝিম করা, বমিভাব ইত্যাদি লক্ষণ দেখা গেলে প্রেশার পরীক্ষা করে দেখতে হবে এবং সাথেসাথে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *