Everything About Ekadashi Rituals in Bengali

Ekadashi: একাদশীর সাতসতেরো – চন্দ্র তিথি

লাইফস্টাইল

চাঁদের শুক্ল ও কৃষ্ণপক্ষের একাদশী (Ekadashi) তিথি । হিন্দুধর্মমতে এদিন বিধবাদের, বিশেষত উচ্চবর্ণীয় বিধবাদের নিরম্বু উপবাস বিহিত।

একাদশী একটি চন্দ্র তিথি। চাঁদের শুক্লপক্ষ ও কৃষ্ণপক্ষের একাদশী (Ekadashi) তিথি, হিন্দু ধর্মমতানুসারে পুণ্যতিথি হিসেবে বিবেচিত। হিন্দুধর্মমতে এদিন বিধবাদের, বিশেষত উচ্চবর্ণীয় বিধবাদের নিরম্বু উপবাস বিহিত। অবশ্য বর্ণ ও লিঙ্গনির্বিশেষে যে কেউ একাদশী পালন করতে পারেন। এসময় সাধারণত ফলমূল ও বিভিন্ন সবজি এবং দুধ খাওয়া যায়, তবে একাদশীতে পঞ্চরবি শস্য বর্জন করা বাঞ্চনীয়। বিষ্ণুর শয়ন, পার্শ্ব পরিবর্তন ও উত্থান উপলক্ষে যথাক্রমে আষাঢ়, ভাদ্র ও কার্তিক মাসের শুক্লা একাদশী বিশেষ শুভপ্রদ গণ্য করা হয়। ভৈমী একাদশী ও মাঘের শুক্লা একাদশীকেও বিশেষ মাহাত্ম্যপূর্ণ বলে মনে করা হয়। নিয়মিত একাদশী পালন শরীরের পক্ষেও উপকারী।

চাঁদের পূণির্মা পর্য্যন্ত সময়কে শুক্লপক্ষ এবং আমাবশ্যা পর্য্যন্ত সময়কে কৃষ্ণপক্ষ বলা হয়। পনের দিনে এক পক্ষ সমাপ্ত হয় এই এক পক্ষের এক একটা দিনকে এক একটা তিথি বলা হয়। তিথিগুলোর নাম হল প্রতিপদ, দ্বিতীয়া, তৃতীয়া, চতুর্থী, পঞ্চমী, ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী, দশমী, একাদশী, দ্বাদশী, ত্রয়োদশী, চতুর্দশী এবং পূর্ণিমা অথবা অমাবশ্যা । হিন্দু ধর্মমতানুসারে একাদশীকে পুণ্যতিথি হিসেবে বিবেচনা করে একাদশী ব্রত পালন করা হয়। এদিন পূণ্য লাভের আশায় যে কেউ একাদশী ব্রত পালন করতে পারেন। একাদশী পালনের সাত্ত্বিক নিয়মটি উল্লেখ করছি । এটি পালন করা সবার উচিত ।

১। সমর্থ পক্ষে দশমীতে একাহার, একাদশীতে নিরাহার ও দ্বাদশীতে একাহার করবেন ।
২। তা হতে অসমর্থ পক্ষে শুধুমাত্র একাদশীতে অনাহার।
৩। যদি এতে অসমর্থ হন, একাদশীতে পঞ্চ রবিশস্য ছেড়ে ফল মূলাদি নেওয়ার বিধান আছে।

একাদশীতে কোন পাঁচ প্রকার রবিশস্য গ্রহণ করা উচিত নয়—-
১। ধান জাতীয় সকল প্রকার খাদ্য যেমন চাল, মুড়ি, চিড়া, সুজি, পায়েস, খিচুড়ি, চালের পিঠা, খই ইত্যাদি
২। গম জাতীয় সকল প্রকার খাদ্য যেমন আটা, ময়দা, সুজি, বেকারির রুটি, সব রকম বিস্কুট, হরলিকস ইত্যাদি।
৩। যব বা ভূট্টা জাতীয় সকল প্রকার খাদ্য যেমন ছাতু, খই, রুটি ইত্যাদি।
৪। ডাল জাতীয় সকল প্রকার খাদ্য যেমন মুগ, মাসকলাই, খেসারি, মুসুরী, ছোলা, অড়হর, মটরশুঁটি, বরবটি ও সিম ইত্যাদি।
৫। সরষের তেল, সয়াবিন তেল, তিল তেল ইত্যাদি। উপরোক্ত পঞ্চ রবিশস্য যে কোনও একটি একাদশীতে গ্রহণ করলে ব্রত নষ্ট হয়।

একাদশীর তালিকা – ২০১৯:-

০২.০১.২০১৯ বুধবার (পক্ষবর্দ্ধিনী মহাদ্বাদশী) সফলা একাদশী ০৬.৪১-১০.১৫
১৭.০১.২০১৯ বৃহস্পতিবার পুত্রদা একাদশী ০৬.৪২-১০.২০
৩১.০১.২০১৯ বৃহস্পতিবার ষটতিলা একাদশী ০৬.৩৯-১০.২১
১৬.০২.২০১৯ শনিবার ভৈমী একাদশী ০৬.৩০-০৮.৪১
০২.০৩.২০১৯ শনিবার বিজয়া একাদশী ০৬.১৯-১০.১৩
১৭.০৩.২০১৯ রবিবার আমলকীব্রত একাদশী ০৬.০৫-১০.০৬
০১.০৪.২০১৯ সোমবার (উন্মিলনী মহাদ্বাদশী) পাপমোচনী একাদশী ০৫.৫০-০৯.১০
১৬.০৪.২০১৯ মঙ্গলবার কামদা একাদশী ০৫.৩৬-০৯.৫০
৩০.০৪.২০১৯ মঙ্গলবার বরুথিনী একাদশী ০৭.১৬-০৯.৪৫
১৫.০৫.২০১৯ বুধবার মোহিনী একাদশী ০৫.১৬-০৮.৪৭
৩০.০৫.২০১৯ বৃহস্পতিবার অপরা একাদশী ০৫.১১-০৯.৪১
১৩.০৬.২০১৯ বৃহস্পতিবার পাণ্ডবা নির্জলা একাদশী ০৫.১০-০৯.৪২
২৯.০৬.২০১৯ শনিবার যোগিনী একাদশী ০৫.১৪-০৬.৪৩
১২.০৭.২০১৯ শুক্রবার শয়ন একাদশী ০৭.০২-০৯.৪৯
২৮.০৭.২০১৯ রবিবার কামিকা একাদশী ০৫.২৬-০৯.৫১
১১.০৮.২০১৯ রবিবার পবিত্রারোপণ একাদশী ০৫.৩২-০৯.৫৩
২৭.০৮.২০১৯ মঙ্গলবার (ত্রিস্পর্শা মহাদ্বাদশী) অন্নদা একাদশী ০৫.৩৮-০৯.৫২
০৯.০৯.২০১৯ সোমবার পার্শ্ব একাদশী ০৭.৩৬-০৯.৫১
২৫.০৯.২০১৯ বুধবার ইন্দিরা একাদশী ০৫.৪৮-০৯.৪৯
০৯.১০.২০১৯ বুধবার পাশাঙ্কুশা একাদশী ০৫.৫৩-০৯.৪৭
২৪.১০.২০১৯ বৃহস্পতিবার রমা একাদশী ০৬.০০-০৯.৪৮
০৮.১১.২০১৯ শুক্রবার উত্থান একাদশী ০৬.০৮-০৯.৫০
২৩.১১.২০১৯ শনিবার (ত্রিস্পর্শা মহাদ্বাদশী) উৎপন্না একাদশী ০৬.১৮-০৯.৫৬
০৮.১২.২০১৯ রবিবার মোক্ষদা একাদশী ০৬.২৮-১০.০৩
২২.১২.২০১৯ রবিবার সফলা একাদশী ০৬.৩৬-১০.১০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *