Happy Ganesh Chaturthi

Ganesh Chaturthi: আজ গণেশ চতুর্থী

লাইফস্টাইল

আজ ২ সেপ্টেম্বর সোমবার, সারা দেশ জুড়ে পালিত হবে গণেশ চতুর্থী (Ganesh Chaturthi)। আমাদের দেশের একটি অন্যতম প্রধান উৎসব এই গণেশ চতুর্থী।

আজ গণেশ চতুর্থী (Ganesh Chaturthi) বা গণেশোৎসব হিন্দু দেবতা গণেশের বাৎসরিক পূজা-উৎসব। পুরান জানায়, শিব ও পার্বতী পুত্র গজানন গণেশ হিন্দুদের বুদ্ধি, সমৃদ্ধি ও সৌভাগ্যের সর্বোচ্চ দেবতা। হিন্দুরা বিশ্বাস করেন এই দিন গণেশ তাঁর ভক্তদের মনোবাঞ্ছা পূর্ণ করতে মর্ত্যে অবতীর্ণ হন। সংস্কৃত, কন্নড়, তামিল ও তেলুগু ভাষায় এই উৎসব বিনায়ক চতুর্থী বা বিনায়ক চবিথি নামেও পরিচিত। সিদ্ধিদাতা গণেশের জন্মোৎসব রূপে পালিত হয় এই উৎসব। হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী ভাদ্র মাসের শুক্লা চতুর্থী তিথিতে গণেশের পূজা বিধেয়। দশদিনব্যাপী গণেশোৎসবের সমাপ্তি হয় অনন্ত চতুর্দশীর দিন। ভাদ্রপদ শুক্লপক্ষ চতুর্থী মধ্যাহ্নব্যাপিনী পূর্বাবিদ্ধ – এই পূজার প্রশস্ত সময়। চতুর্থী দুই দিনে পড়লে পূর্বদিনে পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

আজ ২ সেপ্টেম্বর সোমবার, সারা দেশ জুড়ে পালিত হবে গণেশ চতুর্থী। আমাদের দেশের একটি অন্যতম প্রধান উৎসব এই গণেশ চতুর্থী। মহারাষ্ট্র, গোয়া, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু, তেলেঙ্গানার মানুষ ভক্তির সাথে গণেশ চতুর্থী পালন করে। শিব-পার্বতীর পুত্র গণেশের মহিমার জন্য মহা ধুমধামে পালিত হয় গণেশ চতুর্থী বা বিনায়ক চতুর্থী। সাধারণত, ব্যবসায়ীরাই গণেশ পুজো বেশি করে থাকেন। তবে অনেক অঞ্চল বা বাড়িতেও ভক্তিভরে পূজিত হন সিদ্ধিদাতা গণেশ। সব কাজে যাতে সিদ্ধি লাভ হয় সহজে সেকারণেই এই দেবতার পুজো হিন্দু ধর্মে প্রচলিত। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর বিসর্জন দেওয়া হবে দেব মূর্তির। মুম্বইয়ে প্রতিবছর দেড় লক্ষ দেব প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয় সমুদ্রে।

গণেশ চতুর্থী পালিত হবে: ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার। আর বিসর্জনের দিন: ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার।
পুজোর সময়—-

সকালে গণেশ পুজোর সময়:            সকাল ১১:০৫ টা থেকে বেলা ১:৩৬  মিনিট পর্যন্ত। 
                                               সময়কাল - ২ ঘন্টা ৩১ মিনিট।
                                   গণেশ বিসর্জন: বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯। 
                                                 সময় - বেলা ১২টার পর থেকে।
                                    চতুর্থী তিথি শুরু - সকাল ৪:৫৭ মিনিট থেকে। 
                                           চতুর্থী তিথি শেষ- দুপুর ১:৫৪ মিনিটে।

গণেশের অপর নাম বিঘ্নহর্তা। তিনি জীবনের সব রকমের বাধা-বিঘ্ন দূর করেন বলেই শাস্ত্রে তাঁকে বিঘ্নহর্তা নামে অবিহিত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *