Kojagari Lakshmi Puja 2019 in Bengali

Kojagari Lakshmi Puja: আজ ঘরে ঘরে কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা

লাইফস্টাইল

আশ্বিন মাসের শেষ পূর্ণিমা তিথিতে কোজাগরী লক্ষ্মীর (Kojagari Lakshmi Puja) আরাধনা হয় বাংলার বাড়িতে বাড়িতে। হিন্দু শাস্ত্র মতে লক্ষ্মী হলেন ধন সম্পত্তির দেবী।

দেবী দুর্গার বিসর্জন ও বিজয়া পর্ব সারা। এবার বাংলা মেতে উঠবে আর এক মেয়ের , আর এক দেবীর আরাধনায়। আশ্বিন মাসের শেষ পূর্ণিমা তিথিতে কোজাগরী লক্ষ্মীর (Kojagari Lakshmi Puja) আরাধনা হয় বাংলার বাড়িতে বাড়িতে। হিন্দু শাস্ত্র মতে লক্ষ্মী হলেন ধন সম্পত্তির দেবী। ধন সম্পদের আসা এবং মঙ্গল কামনাতেই বাড়িতে বাড়িতে লক্ষ্মীর আরাধনা হয়। সারা বছরই লক্ষ্মীর আরাধনা হয় বাঙালি গৃহস্থ বাড়িতে।

এ বছরের কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর নির্ঘণ্ট ও সময়সূচি:

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে –
কোজাগরী পূর্ণিমা আরম্ভ- ২৫ আশ্বিন ১৪২৬, শনিবার। (ইং তারিখ: ১২/১০/২০১৯)। সময়: রাত্রি ১২টা ৩৭ মিনিট থেকে।
কোজাগরী পূর্ণিমা শেষ- ২৬ আশ্বিন ১৪২৬, রবিবার। (ইং তারিখ: ১৩/১০/২০১৯)। সময়: রাত্রি ২টো ৩৮ মিনিট পর্যন্ত।

গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে –
পূর্ণিমা আরম্ভ- ২৪ আশ্বিন ১৪২৬, শনিবার। ( ১২/১০/২০১৯)। সময়: রাত্রি ১২টা ৩ মিনিট থেকে।
পূর্ণিমা শেষ- ২৫ আশ্বিন ১৪২৬, রবিবার। (১৩/১০/২০১৯)। সময়: রাত্রি ১টা ৫৬ মিনিট পর্যন্ত।

কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর প্রকৃষ্ট সময় প্রদোষকাল। অর্থাৎ সূর্যাস্ত থেকে দু ঘণ্টা পর্যন্ত যে সময়। যদিও প্রদোষ থেকে নিশীথ অবধি তিথি থাকলেও সেই প্রদোষেই পুজো বিহিত। কিন্তু আগেরদিন রাত্রি থেকে পরদিন প্রদোষ পর্যন্ত তিথি থাকলে পরদিন প্রদোষেই পুজো করা বিধেয়। লক্ষ্মীর পাঁচালি পাঠ করে তাঁর আরাধনা করা হয়।উপচারে ফল মিষ্টি ছাড়াও থাকে মোয়া, নাড়ু ইত্যাদি। লক্ষ্মীর আচার অনুষ্ঠানেও দেখা যায় নানা ধরনের তাৎপর্য। কোনও কোনও পরিবারে পুজোয় মোট ১৪টি পাত্রে উপচার রাখা হয়। কলাপাতায় টাকা, স্বর্ণ মুদ্রা, ধান, পান, কড়ি, হলুদ ও হরিতকী দিয়ে সাজানো হয় পুজো স্থানটিকে। পুজোর উপকরণ এবং আচার অনুষ্ঠান দেখে অনুমান করা যায় এর নেপথ্যে থাকা কৃষি সমাজের প্রভাব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *