World Breastfeeding Week Starting From Today

World Breastfeeding Week – আজ থেকে শুরু হচ্ছে ‘বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ’

লাইফস্টাইল

‘কাজের মাঝে শিশু করবে মায়ের দুধ পান, সবাই মিলে সবখানে করি সমাধান’-এই প্রতিপাদ্য নিয়ে পালিত হবে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ (World Breastfeeding Week)।

আজ থেকে শুরু হচ্ছে ‘বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ’ (World Breastfeeding Week)। এই দিবস বা সপ্তাহ পালনের উদ্দেশ্য হচ্ছে শিশুদের মায়ের বুকের দুধ খাওয়ানোর কৃষ্টি পুনরুদ্ধার।মায়ের দুধ সৃষ্টিকর্তার পক্ষ থেকে সমগ্র মানবজাতির জন্য একটি বিশেষ আশীর্বাদ। চিকিৎসা বিজ্ঞানও মায়ের দুধকে শিশুদের সর্বোৎকৃষ্ট খাবার হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। মায়ের দুধের প্রকৃত মূল্যায়ন পৃথিবীর সবকিছুর উর্ধে।

ওয়ার্ল্ড এলায়েন্স ফর ব্রেস্ট ফিডিং একশন এর উদ্যোগে এবং ইউনিসেফ এর সহযোগিতায় ১৯৯২ সাল থেকে প্রতি বছর এক থেকে সাত আগস্ট পর্যন্ত পালিত হয় বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ। ‘কাজের মাঝে শিশু করবে মায়ের দুধ পান, সবাই মিলে সবখানে করি সমাধান’-এই প্রতিপাদ্য নিয়ে পালিত হবে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ (World Breastfeeding Week)। এবার প্রতিপাদ্যের সঙ্গে ৭টি বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এগুলো হল- সুযোগ, মাতৃত্বকালীন ছুটি, মাতৃত্বকালীন সুবিধা বা নগদ সহায়তা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা, চাকরির সুরক্ষা ও বৈষম্যহীনতা, মাতৃদুগ্ধ দানের বিরতি এবং দুগ্ধদানের সুব্যবস্থা।

শিশু বঞ্চিত হতে শুরু করে তার মাতৃদুগ্ধের অধিকার থেকে অন্যদিকে অকারণেই বেড়ে যায় শিশুর কৃত্রিম দুধের ব্যয়। সমস্যা তৈরী হয় সার্বিক ভাবে| মাতৃদুগ্ধ শিশুদের অপরিহার্য খাদ্য। শিশু স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও শিশু রোগ কমানোর জন্য বিভিন্ন জনস্বাস্থ্য কার্যক্রম যেমন টিকা দান, ডায়রিয়া নিয়ন্ত্রণ, পরিবার পরিকল্পনা, অপুষ্টির অভাব দূরীকরণ ইত্যাদি পদক্ষেপ নেওয়া হয়। মাতৃদুগ্ধ এই পদক্ষেপগুলোর প্রত্যেকটির সফলতায় সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *