World Thrift Day in Bengali

World Thrift Day: বিশ্ব মিতব্যয়িতা দিবস

লাইফস্টাইল

৩১শে অক্টোবর – বিশ্ব মিতব্যয়িতা দিবস (World Thrift Day) আজ। আসলে মিতব্যয়ি হওয়ার আহবান জানানোর মধ্য দিয়ে এই দিবসটি পালন করা হয়।

৩১শে অক্টোবর – বিশ্ব মিতব্যয়িতা দিবস (World Thrift Day) আজ। আসলে মিতব্যয়ি হওয়ার আহবান জানানোর মধ্য দিয়ে এই দিবসটি পালন করা হয়। আজ পরিবার ও জাতির কল্যাণে সকলকে মিতব্যয়ি হওয়ার কথা জানানো হয়। আর এই দিবসটির উদ্ভব হয় ১৯২৪ সালে। সেই বছর মিলানে বিশ্বের বিভিন্ন সঞ্চয় ব্যাংকের প্রতিনিধিদের প্রথম বিশ্ব কংগ্রেসের গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দিবসটি পালন শুরু হয়। সেই থেকে সঞ্চয় ব্যাংকগুলো আন্তর্জাতিকভাবে দিবসটি পালন করে। মিতব্যয় ও সঞ্চয়ের গুরুত্ব সম্পর্কে জনগণের মনোযোগ আকর্ষণ করার উদ্দেশ্যে পালন করা হয় দিবসটি। আমাদের মতো তৃতীয় বিশ্বের একটি দেশের নাগরিকদের জন্য মিতব্যয়িতার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম।

অর্থব্যয়ের তিনটি ধরণ হচ্ছে- কার্পণ্য, মিতব্যয় এবং অপব্যয়। বিষয়ের সকল গ্রন্থই উৎসাহিত করেছে মিতব্যয়কে। আমাদের সমাজে দিনদিন বেড়ে চলেছে অপব্যয়কারীর সংখ্যা। বিশেষ করে পুঁজিপতি বিত্তশালীদের মধ্যে অপব্যয় বা অপচয়ের প্রবণতা বেশি। বিশেষ করে সরকারি চাকরিজীবী-দুর্নীতিবাজ চক্র অবৈধ পন্থায় সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলেছে এবং কারণে-অকারণে সম্পদ অপচয় করছে। সরকারি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পসহ অন্যান্য আর্থিক খাতে অধিক অপচয় হচ্ছে সম্পদের। তাই সব ক্ষেত্রে মিতব্যয়ের কথা স্মরণ করতে হবে।

দিবসটি উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী-সামজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মিতব্যয়িতা মানে হলো ব্যয়ের ক্ষেত্রে সংযম বা আয় বুঝে ব্যয়।ব্যয়ের ক্ষত্রে মধ্যমপন্থা অবলম্বন’ ও মিতব্যয়িতার অর্থ। প্রতিবছর বিশ্বে প্রায় ১৩০ কোটি টন খাদ্য নষ্ট হয়, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৬০ লাখ কোটি টাকা। অথচ বিশ্বে প্রতিদিন ১৭ কোটি মানুষ ক্ষুধার্ত অবস্থায় দিন কাটায়। সমাজের উঁচু শ্রেণির মানুষ অপচয় করে কোটি কোটি টাকার খাবার, আর এর মাশুল দিতে হয় পথের পাশের মানুষগুলোকে। এই সমস্যা সমাধানে প্রয়োজন
মিতব্যয়িতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *