COVID-19 Antibody Successful Tests in Israel

COVID-19 Antibody: ভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় করতে অ্যান্টিবডি

বিজ্ঞান

ইসরায়েলের গবেষকেরা এক অ‌্যন্টিবডির (COVID-19 Antibody) সন্ধান পেয়েছেন, যার মাধ্যমে করোনার চিকিৎসা পদ্ধতির ক্ষেত্রে ব‌্যাপক অগ্রগতি হতে পারে।

মারণ ভাইরাসের গ্রাসে জর্জরিত পৃথিবী। প্রতিশোধক আবিষ্কারের জন্য গোটা বিশ্ব অপেক্ষা করে আছে। ভ্যাকসিন হাতে পৌঁছাতে এক বছর সময় লাগতে পারে। ততদিনে মৃত্যুর তালিকা অনুমানের উর্ধে চলে যেতে পারে। এরমধ্যে এক গুরুত্বপূর্ণ সাফল‌্য পাওয়ার দাবি করলেন ইসরায়েলের গবেষকেরা। তারা এমন এক অ‌্যন্টিবডির (COVID-19 Antibody) সন্ধান পেয়েছেন, যার মাধ্যমে করোনার চিকিৎসা পদ্ধতির ক্ষেত্রে ব‌্যাপক অগ্রগতি হতে পারে। সেই কারণেই মোদী সরকার, নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন ইসরায়েলের সাথে।

২০৭০ সাল নাগাদ বিশ্বের ৩০০ কোটি মানুষকে ‘প্রায় বসবাস–অযোগ্য’ চরম উষ্ণ তাপমাত্রার মধ্যে থাকতে হবেআরও জানতে ক্লিক করুন …

করোনা প্রতিরোধের বড় অস্ত্র:

এইমুহূর্তে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টায় রয়েছে। ইজরায়েল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দাবি করেছেন,এই অ্যান্টিবডি করোনা প্রতিরোধের বড় অস্ত্র হতে পারে। কোভিড প্রতিরোধী এই অ্যান্টিবডি বানিয়েছে ইজরায়েল ইনস্টিটিউট ফর বায়োলজিক্যাল রিসার্চ। জানা যাচ্ছে, এই অ্যান্টিবডি হল মোনোক্লোনাল। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ কোভিড রোগীর দেহকোষে যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয় তার থেকে ক্লোনিং করে এই অ্যান্টিবডি তৈরি করা হয়েছে ল্যাবরেটরিতে। একটি কোষ থেকে এমন অ্যান্টিবডির ক্লোন করা হয়েছে। পলিক্লোনাল এন্টিবডি তৈরিতে সময় লাগে অনেক।

পেন্টাগনের গোপন ভিডিওতে ভিন গ্রহযান ! – আরও জানতে ক্লিক করুন …

ইজরায়েলের রাষ্ট্রদূত জানান:

এবার ইসরায়েলের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ রেখে চলেছেন সাউথ ব্লকের কর্তারা। দিল্লিতে থাকা ইজরায়েলের রাষ্ট্রদূত রন মলকা জানান, “কোভিড সংক্রমণের মোকাবিলায় দু’দেশই নিজেদের মধ্যে তথ্য আদান প্রদান করছে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে এই সংকটের মোকাবিলা করার অঙ্গীকার নেওয়া হয়েছে। গবেষণার সম্পূর্ণ তথ্য সম্পর্কে আমি অবগত নই। এটুকু বলতে পারি আমরা অ্যাডভান্সড স্টেজে আছি। সফল হলে গোটা বিশ্বের সঙ্গে তা শেয়ার করব।” সংক্রামিতের শরীরে যে ভাইরাল প্রোটিনগুলো ছড়িয়ে পড়তে থাকে তাকে নিষ্ক্রিয় করে দেবে ইসরায়েলের এই অ্যান্টিবডি। সার্স-কভ-২ আরএনএ ভাইরাসের প্রতিলিপি তৈরি করে শরীরে ছড়িয়ে পড়ার প্রক্রিয়া একেবারেই থামিয়ে দেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *