India Japan Moon mission on the way as ISRO and JAXA gears up amid COVID-19

ভারত ও জাপানের যৌথ চন্দ্র অভিযানের স্পষ্ট রূপরেখা

বিজ্ঞান

ভারত ও জাপানের মিলিত ভাবে চন্দ্র অভিযানের (India Japan Moon mission) প্রস্তুতি নিচ্ছে। দুই দেশই মারণ ভাইরাসে জেরবার। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে …

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত এক দশকে ভারত মহাকাশ বিষয়ে অনেকটা এগিয়েছে। দেশীয় প্রযুক্তিতে সাফল্য আসতে শুরু করেছে। একাধিক কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাতে সক্ষম হয়েছে। এবার লক্ষ্য চাঁদে পৌঁছাবার। ভারত ও জাপানের মিলিত ভাবে চন্দ্র অভিযানের (India Japan Moon mission) প্রস্তুতি নিচ্ছে। দুই দেশই মারণ ভাইরাসে জেরবার। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে মহাকাশ যাত্রার প্রস্তুতি।

India Japan Moon mission on the way as ISRO and JAXA gears up amid COVID-19
India Japan Moon mission on the way as ISRO and JAXA gears up amid COVID-19

ভারত ও জাপানের মধ্যে ভাগ হবে অভিযানের একটা স্পষ্ট রূপরেখা। আসলে আগেরবার অল্পের জন্য সাফল্য আটকে যায়। তাই ল্যান্ডারের সঠিক অবতরণের জন্য জাপানের প্রযুক্তিগত সাহায্য নেবে ভারত। সেই অভিযানে ব্যবহার করা হবে জাপান এরোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সির তৈরি স্মার্ট ল্যান্ডার ফর ইনভেস্টিগেশন অফ মুন প্রযুক্তি।

Climate Change in 2070: ২০৭০ সালে চরম উষ্ণতা ! – আরও জানতে ক্লিক করুন …

এই চন্দ্র অভিযানে প্রথমবারের জন্য চাঁদের বুকে ল্যান্ডার এবং রোভার স্থাপন করা হবে। এই অভিযানে ল্যান্ডারটি নির্মাণ ও পরিচালনা করবে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২৪ সালেই ফের চাঁদে অভিযান চালাবে ইসরো। বিজ্ঞানাদের দাবি এই অভিযান হবে আরও বড়।

পেন্টাগনের গোপন ভিডিওতে ভিন গ্রহযান ! – আরও জানতে ক্লিক করুন …

ভারতে জাপানের রাষ্ট্রদূত কেনজি হিরামাৎসু জানান, ‘চন্দ্রাভিযানে ভারতের ধারাবাহিকতা বজায় থাকার বিষয়ে জাপান নিশ্চিত। সেই পথে ভারতের সঙ্গী হতে চায় জাপানও।’ ২০১৬ সালে মউ স্বাক্ষর করে দুই দেশের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে সেই অনুযায়ী কাজ শুরু হয়েছে।

১৯ কোটিতে পঞ্চম বৃহত্তম চাঁদের পাথর বিক্রি – আরও জানতে ক্লিক করুন …

বর্তমানে মহাকাশে মানুষ পাঠানোর মিশন গগনযান নিয়ে ব্যাস্ত ইসরো। ২০২২-এ গগনযান লঞ্চ করতে পারে। তথ্য অনুযায়ী জাপানিরা ল্যান্ডিং মডিউল এবং রোভার তৈরি করবে। জাপান থেকে উত্‍‌ক্ষেপণ করা হবে এই অভিযানের আধুনিক রকেট। H3 রকেটকে লঞ্চ ভেহিকেল হিসেবে ধরা হয়েছে। আর এই রকেট তৈরি করবে মিৎসুবিশি।

২০১৭ সালে প্রথম ভারত-জাপান একসঙ্গে চন্দ্র অভিযানের কথা বলে। ২০১৮ সালে জাপান সফরে গিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার চাঁদের সাফল্যের দিকে তাকিয়ে আছে দেশবাসী। তৈরী হতে চলেছে নতুন ইতিহাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *