BCCI Election will be Held on 23rd of October

BCCI Election: আগামী ২৩শে অক্টোবর বোর্ডের নির্বাচন

খেলা

একদিন পিছিয়ে গেল বিসিসিআইয়ের নির্বাচন (BCCI Election)। আগামী ২৩শে অক্টোবর হবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচন।

পরিবর্তন করা হলো ক্রিকেট সংগঠনের নির্বাচন। একদিন পিছিয়ে গেল বিসিসিআইয়ের নির্বাচন (BCCI Election)। আগামী ২৩শে অক্টোবর হবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচন। আগে ঠিক ছিল ২২শে অক্টোবর হবে নির্বাচন। কিন্তু ২১শে অক্টোবর হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচনের দিন ঠিক হয়েছে। আসলে দুই রাজ্যেই হবে এক দফায় ভোট। সেকারণেই একদিন পিছিয়ে গেল বোর্ডের নির্বাচন। কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স প্রধান বিনোদ রাই একথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, ‘‌দুই রাজ্যে ভোটের জন্য বোর্ডের নির্বাচন একদিন পিছিয়ে দেওয়া হল।’‌ সিওএ–র আরেক সদস্য ডায়না এডুলজি জানান , ‘‌সুপ্রিম কোর্ট ২০শে সেপ্টেম্বর যে নির্দেশ দিয়েছে, তাতে রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলি নির্বাচনের জন্য কিছুদিন বাড়তি সময় পাবে।

প্রশাসকদের কমিটির প্রধান বিনোদ রাই বলেন, ‘‘দুই রাজ্যের বিধানসভা ভোটের কারণেই বোর্ড নির্বাচনের দিন পিছোতে হচ্ছে।’’ এ দিন প্রশাসকদের কমিটি আরও জানিয়ে দিয়েছে, বোর্ড অনুমোদিত রাজ্য সংস্থাগুলোর নির্বাচন আগামী ৪ঠা অক্টোবরের মধ্যে সেরে ফেলতে হবে। ইতিমধ্যেই সিএবি জানিয়ে দিয়েছে, ২৮শে সেপ্টেম্বর মহালয়ার দিনে নির্বাচন হবে তাদের। এই নির্বাচনের পরেই সুপ্রিম কোর্ট নিয়োজিত কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স এর মেয়াদ শেষ হবে। ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে বিসিসিআই সামলাচ্ছে এই কমিটি। ‌‌

প্রশাসকদের কমিটির সদস্য ডায়ানা এডুলজিও বলেন, ‘‘গত ২০শে সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছে, সেই অনুযায়ী, বোর্ড অনুমোদিত রাজ্য সংস্থাগুলোর নির্বাচন কয়েক দিন পিছোতে পারে। কিন্তু বোর্ডের নির্বাচন নির্ধারিত সময়েই করার কথা বলা হয়েছিল। মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন ২১ অক্টোবর। তাই বোর্ড নির্বাচনের দিন পিছোতেই হচ্ছে।’’ এ দিন প্রশাসকদের কমিটির প্রধান তামিলনাড়ু ক্রিকেট সংস্থার নির্বাচন করার জন্য সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। সিওএ প্রধান বিনোদ রাই বলেন, ‘বিসিসিআই-এর নির্বাচন পূর্ব নির্ধারিত সূচি মেনেই অনুষ্ঠিত হবে। শুধুমাত্র নির্বাচনের দিন একদিন পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। কারণ ২১শে অক্টোবর হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্রের বিধানসভা নির্বাচন। দুই রাজ্যের নির্বাচনে অংশ নেওয়া কেউ যাতে বোর্ডের নির্বাচন পর্ব থেকে বঞ্চিত না হন সে কারণেই এই সিদ্ধান্ত।

৭.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *