Rahul Dravid was voted greatest Indian Test batsman in the last 50 years according to Wisden

উইজডেনের বিচারে ভারত সেরা দ্রাবিড়, হারালেন সচিনকে

খেলা

উইজডেনের আয়োজিত সোশাল মিডিয়া ভোটে শচীনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) । দর্শকদের বিচারে সেরা হলেন মিস্টার ডিপেন্ডবল।

নিজস্ব সংবাদদাতা: ভারতীয় ক্রিকেটে শ্রেষ্টত্বের লড়াই বহুদিন ধরেই হয়েছে। প্রত্যেক দশকে একাধিক নামি খেলোয়াড় দেশকে গর্বিত করেছে। মাঠের নানা রেকর্ডের সাথে থাকে দেশের সম্মান। উইজডেনের আয়োজিত সোশাল মিডিয়া ভোটে শচীনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) । দর্শকদের বিচারে সেরা হলেন মিস্টার ডিপেন্ডবল। তিনি ভারতের সর্বকালের সেরা টেস্ট ব্যাটসম্যান।

উইজডেনের সেই সোশ্যাল মিডিয়া ভোটিংয়ে ৫২ শতাংশ ভোট পেয়েছেন দ্রাবিড়। এরপাশে প্রতিদ্বন্দ্বী শচীন ভোট পেয়েছেন ৪৮ শতাংশ। জানা যাচ্ছে, মোট ১১৪০০ জন ক্রিকেট সমর্থক এই ভোটিং প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়েছিলেন। শেষ ৫০ বছরে, মোট ১৬ জন ভারতীয় ব্যাটসম্যানকে নিয়ে প্রথমে প্রতিযোগিতার আয়োজন করে উইজডেন। মূলপর্বে শেষ পর্যন্ত থাকেন চার জন ক্রিকেটার।

Sachin Tendulkar and Sunil Gavaskar were voted as 2nd and 3rd greatest Indian Test batsman in the last 50 years according to Wisden
Sachin Tendulkar and Sunil Gavaskar were voted as 2nd and 3rd greatest Indian Test batsman in the last 50 years according to Wisden

এনারা হলেন সুনীল গাভাসকর, শচীন তেন্ডুলকর, রাহুল দ্রাবিড় ও বিরাট কোহলি। দেশের হয়ে ২০০ টি টেস্টে শচীন করেছেন ১৫,৯২১ রান। রাহুল দ্রাবিড় ১৬৪ টি টেস্টে করেছেন ১৩,২৮৮ রান। এদের অনেক আগে সুনীল গাভাসকার ১২৫টি টেস্টে করেছেন ১০,১২২ রান। অন্যদিকে বিরাট কোহলি ৮৬টি টেস্টে করেছেন ৭২৪০ রান।

[ আরও পড়ুন ] সৌরভ চাইছেন দর্শকশূন্য মাঠে হবে IPL 2020

এই ভোটের সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে যান বিরাট কোহলি ও সুনীল গাভাসকর। লড়াই চলতে থেকে দ্রাবিড় ও শচীনের মধ্যে। তৃতীয় স্থানের জন্য লড়াইয়ে গাভাসকর হারান বিরাটকে। এই অনলাইন পোলে অংশ নেওয়া সমর্থকদের মতে, দেশের পাঁচ দশকের সেরা টেস্ট ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়। তারপর শচীন তেণ্ডুলকরের স্থান। আর তৃতীয় স্থানে আছেন সুনীল গাভাসকর।

[ আরও পড়ুন ] আফ্রিকার ৭ ও পাকিস্তানের ১০জন করোনা আক্রান্ত

বর্তমানের অধিনায়ক বিরাট কোহলি রইলেন চতুর্থ স্থানে। সতীর্থ লক্ষ্মণ জানান, কঠোর পরিশ্রমেই শচীনের পর্যায়ে নিজেকে তুলে আনেন এই দ্রাবিড়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *