13 govt lodges opening for tourists in West Bengal

১৩টি সরকারি ট্যুরিস্ট লজ খুলছে – বর্ষার নবরূপকে আহ্বান

ভ্রমণ

রাজ্যের পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করতে সরকারি ট্যুরিস্ট লজগুলিকে (Govt lodges) চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রথম পর্যায়ে পর্যটকদের জন্য বিভিন্ন পর্যটন …

নিজস্ব সংবাদদাতা: ভাইরাসের প্রকটে মানুষ দীর্ঘদিন ঘরবন্দি। এদিকে মেঘদূত অনেকদিন হলো তার অস্তিত্ব জানিয়েছে। মেঘ বৃষ্টিতে গড়ে গেছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। রাজ্যের পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করতে সরকারি ট্যুরিস্ট লজগুলিকে (Govt lodges) চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রথম পর্যায়ে পর্যটকদের জন্য বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে অবস্থিত ১৩টি টুরিস্ট লজের দরজা খোলা হচ্ছে। তবে সেখানে থাকার জন্য বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে।

13 govt lodges opening for tourists in West Bengal
13 govt lodges opening for tourists in West Bengal

আসলে এই লকডাউনের জন্য খুব ক্ষতি হয়েছে রাজ্যের পর্যটন শিল্পে। সেই কারণে সরকারি ট্যুরিস্ট লজের মাধ্যমে আয় করতে চায়। যে সমস্ত ট্যুরিস্ট লজ খোলা হচ্ছে তার মধ্যে আছে উত্তরবঙ্গের কালিম্পংয়ের মর্গ্যান হাউস, জলপাইগুড়ির তিলাবাড়ি। দীঘা, বকখালি ট্যুরিস্ট লজ। ডায়মন্ড হারবারের ট্যুরিস্ট লজ সাগরিকা, বোলপুরের ‘রাঙাবিতান’ ও ঝাড়গ্রাম ট্যুরিস্ট লজ এবং বিষ্ণুপুর ট্যুরিস্ট লজ।

[ আরো পড়ুন ] খুলছে দার্জিলিং – ছাড় দিঘা শঙ্করপুর সমুদ্রে স্নান

ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশন বা পর্যটন দফতরের ওয়েবসাইট মারফত এই সব লজ বুকিং করা যাবে। টুরিস্ট লজগুলির যাবতীয় বুকিং শুধুমাত্র অনলাইনে করা যাবে। সকল পর্যটকদের জন্য সামাজিক দূরত্ব বিধি ও মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক।

জানা যাচ্ছে অনেকে অগ্রিম বুকিং করেছেন। সবচেয়ে বেশি চাপ আছে কালিম্পংয়ের মরগ্যান হাউজ এবং জলপাইগুড়ির তিলাবাড়িতে। দীঘা ও ঝাড়গ্রাম ও বিষ্ণুপুরে আগ্রহ যথেষ্ট আছে। লজের বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মীরা ঘরের বিছানা, বালিশ স্যানিটাইজ করবেন। পর্যটক চলে গেলে পুরো ঘর স্যানিটাইজ করা হবে। এখন থেকে এক সাথে বসে ডাইনিং রুমে বা হোটেলের রেস্টুরেন্টে তারা খাবার খেতে পারবেন না। প্রত্যেকের ঘরে খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে। এখন থেকে সম্পূর্ণ ভাবে এই রুম সার্ভিস চালু হবে। এবার লেটস গো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *