Mukutmanipur Tour

Mukutmanipur ভ্রমণ

ভ্রমণ

কংসাবতী ও কুমারী নদীর সঙ্গমে উইক-এন্ড ছুটি কাটানোর দারুণ স্পট মুকুটমণিপুর (Mukutmanipur)। ৮৬ বর্গ কিলোমিটারের জলাধার কুমারী আর কংসাবতীর জলে।

মুকুটমণিপুর (Mukutmanipur) বাঁকুড়া জেলায় পশ্চিমবঙ্গের অন্তর্গত| ছুটি কাটানোর পক্ষে মুকুটমণিপুরের সঙ্গে তুলনীয় পর্যটনস্থল দক্ষিণবঙ্গে খুব কমই আছে। কংসাবতী ও কুমারী নদীর সঙ্গমে উইক-এন্ড ছুটি কাটানোর দারুণ স্পট মুকুটমণিপুর। ৮৬ বর্গ কিলোমিটারের জলাধার কুমারী আর কংসাবতীর জলে। টলটলে নীল জলে ছোট ছোট ঢেউ, তারই মাঝে ভেসে বেড়ায় নয়নলোভন বাহারি নৌকা। দিকচক্রবাল ঢাকা পড়েছে অনুচ্চ পাহাড়ি টিলায়। আঁকাবাঁকা পায়ে চলা পথ পাহাড়ের গা বেয়ে উধাও। সূর্যোদয় আর সূর্যাস্ত দুই-ই মনোরম।

কী কী দেখবেন এখানে :-
১. শহরের নিত্য নিয়মের জীবন থেকে এই মুকুটমনিপুর আপনাকে অনেকটাই রেহাই দেবে| কংসাবতী বাঁধ দীর্ঘ দু’কিলোমিটার, চারিদিকে বাঁধানো, এই কংসাবতী বাঁধটি দেখতে খুব সুন্দর| এই বাঁধ থেকে কয়েকটি গেটের সাহায্য জল ছাড়া হয়| আবার এর ক্যনেলটির মধ্য দিয়ে হাঁটতে বেশ ভালো লাগে|

Mukutmanipur Tour
Mukutmanipur Tour

২. কংসাবতী বাঁধ এর পাশে অনুচ্চ পাহাড় আছে| মন ভালো করা এই পাহাড়টি সবুজ গাছপালাতে ভরা| এই পাহাড়ে ধাপে ধাপে উঠে গেছে বলেই চার দিক খুব সুন্দর দেখায়|কেউ যদি একাকীত্ব ভাবেই কিছুক্ষণ কাটাতে চাও, তাহলে এই পাহাড়ের উপর বসলেই অন্য জগতের সন্ধান পাবেন|

Kangsabati Dam
Kangsabati Dam

৩. মেঠো পথে ৩ কিমি আর বাঁধ ধরে ৬ কিমি যেতে পরেশনাথ পাহাড়ি টিলায় হিন্দুর দেবতা শিব ও জৈন দেবতা পার্শ্বনাথ স্বামীর মন্দির। এ ছাড়াও মূর্তি রয়েছে নানান। ফেরিতে নদী পেরিয়ে ওপারে আরও দেড় কিমি গিয়ে জলাধারে বেষ্টিত মহুয়া-কেন্দু-পলাশ-আমলকীতে ছাওয়া ছোট্ট সবুজ দ্বীপ বনপুকুরিয়ায় মৃগদাবটি দেখে নিতে ভুলো না। আর ৪ কিমি দূরে গোরাবাড়ি পেরিয়ে অম্বিকানগর – অতীতের কীর্তিখ্যাত রাজা অনন্তধবল দেও-র রাজধানী আজ বিধ্বস্ত হলেও অম্বিকার মন্দিরে দেবী অম্বিকাকে দর্শন করে আসা যায়।

Green Island in Mukutmanipur
Green Island in Mukutmanipur

৪. কংসাবতী ড্যাম একটু ভালো ভাবে ঘোরার জন্য বোটিংয়ের ব্যবস্থা আছে| কয়েকজন মিলে বোট ভাড়া করে আপনি বেশ কয়েক ঘন্টা জলে ঘুরে বেড়াতে পারেন| পরিষ্কার ও নিরাপদ জলের ভ্রমণ সবাইকে মজা দেবে|

Boating in Mukutmanipur
Boating in Mukutmanipur

৫. আট কিলোমিটার দূরে একটি ডিয়ার পার্ক আছে| সবুজ গাছপালায় ভর্তি এ ডিয়ার পার্কের মধ্যে আপনি হরিণ, ময়ুর, রাজহাস, দেখতে পাবেন|

Deer Park in Mukutmanipur
Deer Park in Mukutmanipur

কিভাবে যাবেন :-
হাওড়া থেকে খড়গপুর গামী যে কোন ট্রেনে এসে, খড়গপুর থেকে বাঁকুড়া বিষ্ণুপুর ট্রেনে চেপে বিষ্ণুপুরে অথবা বাকুড়ায় নেমে, ওখান থেকে বাস অথবা চার চাকার গাড়ি করে আসা যাবে এই মুকুটমনিপুর | তাছাড়া কলকাতা থেকে সরাসরি বাঁকুড়ার বাস ছাড়ে, অথবা বিষ্ণুপুর বাস ছাড়ে – বিষ্ণুপুর থেকে বাস পাল্টে আপনি মুকুটমণিপুরে আসতে পারবেন| প্রাইভেট কারে করে এলে আপনি জি টি রোড ধরে এসে দুর্গাপুর থেকে বেলিয়াতোড় হয়ে বাঁকুড়ার ভিতর দিয়ে মুকুটমনিপুর আসবেন|

কোথায় থাকবেন :-
এখানে থাকার জন্য অনেক হোটেল ও লজ আছে| এখানে হোটেল না পাওয়া গেলে কাছে বাঁকুড়া শহরে আপনি হোটেল পেয়ে যাবেন|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *