Burj Khalifa Turns into Tallest Charity Box or Coronavirus Charity Box

বড় দানবাক্স বুর্জ খলিফা – অগণিত অসহায়দের পাশে

আন্তর্জাতিক

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু ভবন সংযুক্ত আরব আমিরাতের বুর্জ খলিফা। সেটি এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় দানবাক্সে (Tallest Charity Box) পরিণত হয়েছে।

বিশ্বের সব দেশের অবস্থা উদ্বেগের। কাজ থামিয়ে গৃহবন্দী অগণিত মানুষ। আতংকের সাথে বাড়ছে খাদ্য সংকট। এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু ভবন সংযুক্ত আরব আমিরাতের বুর্জ খলিফা। সেটি এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় দানবাক্সে (Tallest Charity Box) পরিণত হয়েছে। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর কম আয়ের মানুষদের খাবার দেয়ার উদ্দেশ্যে বুর্জ খলিফাকে দান বাক্সের নকশায় সাজানো হয়। মানুষ এগিয়ে আসছে, অগণিত মানুষের জন্য। তৈরী হচ্ছে এক উর্বর মানবতার ক্ষেত্র।

ইরানের আত্মঘাতী হামলায় যুদ্ধজাহাজ ডুবে নিহত ৪০জনআরও জানতে ক্লিক করুন …

টলেস্ট ডোনেশন বক্স:

সংযুক্ত আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত নিম্ন আয়ের মানুষকে খাদ্যসহায়তা দিতে ‘টলেস্ট ডোনেশন বক্স’ শীর্ষক একটি কর্মসূচি চালু হয়েছে। এর অংশ হিসেবে বিখ্যাত ভবনটি রূপান্তরিত হয়েছে এক সচেতনতার বৃহত্তম দানবাক্সে! অসহায় মানুষের জন্য খাবার সরবরাহে বুর্জ খলিফার সঙ্গে যৌথভাবে অনুদানের বাক্স চালু করেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম। দেশের নিম্ন আয়ের মানুষকে খাবার দিতে ১০ দিরহামের বিনিময়ে বুর্জ খলিফার একটি করে বাতি জ্বালাতে পারবে যে কেউ কিংবা যেকোনও প্রতিষ্ঠান।

করোনা হলেই মার্কিন সেনাবাহিনীতে চাকরি বাতিল – আরও জানতে ক্লিক করুন …

মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম গ্লোবাল ইনেশিয়েটিভ:

ইচ্ছা থাকলেই উপায় তৈরী হয়। ইতিমধ্যে করোনা ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের মাঝে ১২ লাখ খাবার পার্সেল বিতরণ করা সম্ভব হয়েছে। দরিদ্রদের খাবার বিতরণের এ উদ্যোগে নেতৃত্ব দিচ্ছে মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম গ্লোবাল ইনেশিয়েটিভ। এখন তাদের লক্ষ্য রমজানের কম আয়ের মানুষদের মাঝে এক কোটি মিল সরবরাহ করা। ভিডিওটির লিংকটি হল– একটি বাতি একটি খাবার’ হ্যাশট্যাগ দিয়েছে দুবাই মিডিয়া অফিস। সেখানে লেখা আছে , ” পৃথিবীর দুর্যোগে বুর্জ খলিফার একেকটি বাতি ক্ষতিগ্রস্তদের জীবন আলোকিত করতে সহায়ক হচ্ছে। মানুষ একসঙ্গে থাকলে অসম্ভব হয়ে উঠবে সম্ভব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *