Donald Trump can strike Iran during his last days of White House

ট্রাম্প শেষ বেলায় ইরানে হামলা চালাতে পারেন

আন্তর্জাতিক

যদিও ইরানের বিরুদ্ধে ট্রাম্প হামলার নির্দেশ (Trump can strike Iran) দেবেন এমন কোনো গোয়েন্দা তথ্য সামনে আসেনি। ইসরায়েলের সিনিয়র …

নিজস্ব সংবাদদাতা: আমেরিকার প্রশাসনে অনেক রদবদল ঘটেছে। ট্রাম্পের জায়গাতে আসছেন বাইডেন। কিন্তু বিপদের সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ায় ক্ষমতা ছাড়ার আগে শেষ সময়ে ইরানে সামরিক হামলা চালাতে পারেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর কারণে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী সতর্ক আছে। যদিও ইরানের বিরুদ্ধে ট্রাম্প হামলার নির্দেশ (Trump can strike Iran) দেবেন এমন কোনো গোয়েন্দা তথ্য সামনে আসেনি। ইসরায়েলের সিনিয়র কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, আগামী ২০শে জানুয়ারি, নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ গ্রহণের আগে এক অঘটন ঘটতেই পারে।

Donald Trump can strike Iran during his last days of White House
Donald Trump can strike Iran during his last days of White House

এই সময়ের মধ্যে ‘অত্যন্ত সংবেদনশীল সময়’ আসতে পারে। সবরকম ভাবে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে সামরিক বাহিনীকে। ইরানের বিরুদ্ধে ট্রাম্প হামলার নির্দেশ দেবেন এমন কোনো গোয়েন্দা তথ্য না থাকলেও এই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে না বলে ইসরাইলি খ্যাতনামা সাংবাদিক বারাক র‍্যাভিদের পক্ষ থেকে জানানো হয়। মনে করা হচ্ছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের পারমাণবিক স্থাপনায় হামলা চালানোর পথ খুঁজেছিলেন।

[ আরও পড়ুন ] মার্কিন অস্ত্র বহনকারী রণতরীকে ধাওয়া করেছে রাশিয়া

যদিও বর্তমান পরিস্থিতিতে তা বিরত রাখতে জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টারা শেষ পর্যন্ত সমর্থ হন। তবে এই বিষয়ে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও, সেনাপ্রধান জেনারেল মাইক মিলি ও ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার সি মিলার সবাই তাকে সতর্ক করে দেন। সেই কারণে হামলার সিদ্ধান্ত থেকে ট্রাম্প সরে আসেন। হঠাৎ ইরানের পরমাণু স্থাপনায় হামলা চালালে মধ্যপ্রাচ্যে বিশাল আকারে সামরিক সংঘাত শুরু হতে পারে। তাই নিজের মেয়াদ শেষ হওয়ার মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগে এমন সংঘাতে জড়ানো ঠিক হবে না। তবু একটা আশংখা থেকেই যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *