Hundreds of students missing in Nigeria school after gunmen attack

নাইজেরিয়ায় স্কুলে বন্দুকবাজ – প্রায় ৪০০ ছাত্রছাত্রী নিখোঁজ

আন্তর্জাতিক

নিখোঁজ প্রায় ৪০০ জন স্কুলের বিদ্যার্থী (Students missing in Nigeria) ৷ উত্তর-পশ্চিম নাইজেরিয়ার কাতসিনা প্রদেশে এই ঘটনা ঘটে ৷ পুলিশ সূত্রে …

নিজস্ব সংবাদদাতা: আবার উত্তপ্ত নাইজেরিয়া। তবে এবার আক্রমনের স্বীকার হলো স্কুলের বিদ্যার্থীরা। একাধিক বন্দুকবাজের দল হামলা চালিয়েছিল স্কুলে ৷ এই ঘটনায় নিখোঁজ প্রায় ৪০০ জন স্কুলের বিদ্যার্থী (Students missing in Nigeria) ৷ উত্তর-পশ্চিম নাইজেরিয়ার কাতসিনা প্রদেশে এই ঘটনা ঘটে ৷ পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, কাঙ্কারার সেই স্কুলে, আধুনিক একে-৪৭ বন্দুক হাতে হামলা চালায় একদল ৷ পুলিশ পৌঁছালে ডাকাতদের দলের সাথে তাদের গুলির লড়াই শুরু হয় ৷ তখন স্কুলের ২০০ জন বিদ্যার্থী পালানোর সুযোগ পায়। কিন্তু খোঁজ মিলছে না প্রায় ৪০০ জন বিদ্যার্থীর ৷ সেই সকল ছাত্র-ছাত্রীদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে স্থানীয় পুলিশ ৷

Hundreds of students missing in Nigeria school after gunmen attack
Hundreds of students missing in Nigeria school after gunmen attack

সন্ধ্যায় সেই বন্দুকবাজের একাধিক মোটরসাইকেল নিয়ে গভর্নমেন্ট সায়েন্স সেকেন্ডারি স্কুলে প্রবেশ করে। তারপর এলোপাতাড়ি গুলি করতে শুরু করে। তখন সেই স্কুলে ৮০০ বিদ্যার্থী ছিল। গুলির কারণে দ্রুত অনেক বিদ্যার্থী ভয়ে পালিয়ে যায়। নাইজিরিয়ার সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বন্দুকবাজেরা একটি জঙ্গলে গিয়ে আশ্রয় নে। সেনাবাহিনীর সঙ্গে হামলাকারীদের গুলিবিনিময় হয়েছে। যদিও এই হামলার মূল কারণ এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। সেনাবাহিনী জানিয়েছে, কোনো ছাত্র এই গোলাগুলিতে আহত হয়নি।

[ আরো পড়ুন ] বাইডেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সামলাবেন কৃষ্ণাঙ্গ লয়েড

যদিও নাইজেরিয়ায় এই অঞ্চলে ডাকাতির ঘটনা নতুন কিছু নয় ৷ মোটা টাকার মুক্তিপণের জন্য স্কুল পড়ুয়াদের অপহরণ করা হতে পারে। প্রশাসন এমন আশঙ্কা করছে ৷ এই ঘটনার সাথে বোকো হারাম বা কোন গোপন গোষ্ঠী জড়িয়ে, সেই বিষয়ে কিছু নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ ৷ তবে স্থানীয়দের ওপর বন্দুকবাজের মাঝেমধ্যেই হামলা চালায় ও একাধিক মানুষকে অপহরণ করে। নাইজেরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বেপরোয়া হামলা একটি নিয়মিত চেনা ঘটনা। গত মাসে বোর্নো রাজ্যে একটি কৃষি খামারে হামলা চালানো হয়। এর ফলে কমবেশি কয়েক শ কৃষক মারা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *