Japanese F-35 Fighter Jet Crashed in The Pacific Ocean

প্রশান্ত মহাসাগরে আছড়ে পড়লো জাপানি যুদ্ধবিমান – Japanese F-35 Fighter Jet Crashed in The Pacific Ocean

আন্তর্জাতিক

Japanese F-35 নিখোঁজের একদিন পর প্রশান্ত মহাসাগর থেকে বিমানটির বিভিন্ন অংশ উদ্ধার হয়েছে। কিন্তু ওই বিমানের পাইলট এখনো নিখোঁজ আছেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

যুদ্ধ নয়, চলছিল নিয়মের উড়ান| পৃথিবীর সব দেশের প্রতিরক্ষা বিভাগ এই অনুশীলনের পর্ব চালায় নিয়ম করে| সেই কাজে নেমে, জাপানের একটি যুদ্ধবিমান প্রশান্ত মহাসাগরে আছড়ে পড়েছে। এই ঘটনায় নিখোঁজ হয়েছেন ওই যুদ্ধবিমানের এক পাইলট। গতকাল মঙ্গলবার, স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে জাপানের এফ-৩৫ যুদ্ধবিমানটি আকাশে ভাসে| জানা যাচ্ছে, দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মিসাওয়া শহরের ১৩৫ কিলোমিটার পূর্বে রাডার থেকে হঠাৎ অদৃশ্য হয়ে যায়। আসলে মঙ্গলবার জাপানের মিশাওয়া ঘাটি থেকে উড়ার ৩০ মিনিট পর বিমানটি বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তবে উদ্ধারকারীরা নিখোঁজ ৪০ বছর বয়সী পুরুষ পাইলটকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

তবে আজ বুধবার, জাপানের সামরিক বাহিনী থেকে জানানো হয়, অভিযান চালিয়ে নিখোঁজের একদিন পর প্রশান্ত মহাসাগর থেকে বিমানটির বিভিন্ন অংশ উদ্ধার হয়েছে। কিন্তু ওই বিমানের পাইলট এখনো নিখোঁজ আছেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা। তবে মাত্র এক বছরের পুরোনো এই বিমানটির সংযোগ কেন বিচ্ছিন্ন হলো এবং কেন এই খারাপ দুর্ঘটনা ঘটল, এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত সঠিক কারণ জানা যায় নি। জাপানের পাবলিক ব্রডকাস্টার এনএইচকে জানিয়েছে, এর আগে ওই যুদ্ধবিমানের কোনো ধরনের গোলমাল ধরা পড়েনি। তাই জোরকদমে উদ্ধারকর্মীরা নিখোঁজ পাইলটকে উদ্ধার করতে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানা যাচ্ছে, জাপান এখন পুরনো এফ-৪ যুদ্ধবিমানের পরিবর্তে এফ-৩৫ বিমান ব্যবহার করছে। আর এর জন্য দেশটিকে ৯০ লাখ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে। এদিকে ওই যুদ্ধবিমানটি নিখোঁজের সময় এফ৩৫ মডেলের আরো তিনটি যুদ্ধবিমান প্রশিক্ষণের জন্য আকাশে ছিল।যদিও এই এফ৩৫ যুদ্ধবিমানের দুর্ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেরিন কর্পস এফ৩৫বি বিমানটি গত সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ ক্যারোলাইনার বিউফোর্টে ভেঙে পরে। আধুনিক এই এফ৩৫ বিমানটির তিনটি সংস্করণ রয়েছে। জাপানের যে বিমানটি প্রশান্ত মহাসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে, সেটির মডেল ছিল এফ৩৫-এ। তবে এফ৩৫-সি মডেলের বিমান যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী ব্যবহার করে। আশা করা যায়,পাইলটকে উদ্ধার করা সম্ভব হবে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *