Joseph Stalin was a Georgian revolutionary and Soviet politician who led the Soviet Union

Joseph Stalin: রাজনীতিবিদ জোসেফ স্টালিনের প্রয়াণ দিবস

আন্তর্জাতিক

সোভিয়েত সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থার মহান কারিগর ছিলেন কমরেড স্ট্যালিন (Joseph Stalin)। শিক্ষক লেনিনের মরদেহ কাঁধে নিয়ে স্ট্যলিন শপথ নিয়েছিলেন …

সোভিয়েত সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থার মহান কারিগর ছিলেন কমরেড স্ট্যালিন (Joseph Stalin)। শিক্ষক লেনিনের মরদেহ কাঁধে নিয়ে স্ট্যলিন শপথ নিয়েছিলেন- শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও সমাজতন্ত্র রক্ষা করবেন। সেই শপথ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অক্ষরে অক্ষরে রক্ষা করে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিজ্ঞান, কৃষি, শিল্প ও সামরিক- সবদিক থেকে সোভিয়েত সমাজতন্ত্রকে শান্তির পক্ষে মহাশক্তিধর রাষ্ট্রে পরিণত করেছিলেন স্ট্যালিন। আজ তার প্রয়াণ দিবস। ১৯৫৩ সালের ৫ই মার্চ তিনি মারা যান। ১৯২২ থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত সোভিয়েত ইউনিয়নের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

Joseph Stalin was a Georgian revolutionary and Soviet politician who led the Soviet Union
Joseph Stalin was a Georgian revolutionary and Soviet politician who led the Soviet Union

১৮৭৮ সালের ১৮ই ডিসেম্বর তিনি জন্মগ্রহণ করেন। সোভিয়েত ইউনিয়নের ইতিহাসের এই সময়ে স্তালিনের নেতৃত্বে প্রচলিত রাজনৈতিক মতবাদ “স্তালিনবাদ” নামে পরিচিত। শুরুতে কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সচিব হিসাবে স্তালিনের ক্ষমতা সীমিত ছিল। ধীরে ধীরে স্তালিন ক্ষমতা কেন্দ্রীভূত করে নেন এবং দলের নেতা হিসেবে সোভিয়েত ইউনিয়নের শাসনক্ষমতা কুক্ষিগত করেন। তার জন্ম হয়েছিল অতি দরিদ্র এক মুচির ঘরে। সাত বছর বয়সে তিনি স্মল পক্সে আক্রান্ত হয়ে সারা জীবনের জন্য সেই ক্ষত বয়ে বেড়ান। ১০ বছর বয়সে মিশন চার্চ স্কুলে ভর্তি হন যেখানে জর্জিয়ান শিশুদের রুশ ভাষা শিখতে বাধ্য করা হত। ঘোড়ায় টানা গাড়ি দুর্ঘটনায় তার বাম হাত চিরদিনের জন্য অচল হয়ে যায়। ষোল বছর বয়সে তিনি এক জর্জিয়ান অর্থাডক্স সেমিনারিতে বৃত্তি পান।

সৌদি আরব বিদেশের মসজিদে আর টাকা দেবে না – আরও জানতে ক্লিক করুন ।

তিনি ভ্লাদিমির লেনিনের লেখা একটা আর্টিকেল পড়ে মার্কসবাদী বিপ্লবী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ১৯০৩ সালে তিনি লেনিনি এর বলশেভিক যোগদান করেন। কিছুকাল পরই তার সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী কর্মকান্ডের জন্য জারের সিক্রেট পুলিশ সার্ভিস-এর নজরে পড়েন। যার ফলশ্রুতিতে তিনি পরিপূর্ন বিপ্লবের হিসেবে গুপ্ত প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। বিপ্লবের সময় তিনি বহুবার ধরা পড়েন ও সাইবেরিয়াতে নির্বাসিত হন। কিন্তু প্রতিবারই তিনি কোন না কোনভাবে সেখান থেকে পালিয়ে আসতে সমর্থ হন। স্তালিন সোভিয়েত ইউনিয়নে কেন্দ্রীয়ভাবে পরিচালিত অর্থনীতি ব্যবস্থার প্রচলন করেন। তদানীন্তন সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রায় সবটুকুই অর্থনৈতিকভাবে অনগ্রসর ছিল। স্তালিনের দ্রুত শিল্পায়ন ও কৃষিকার্যের যৌথীকরণের মাধ্যমে পুরো দেশটি অল্প সময়ের মধ্যে শিল্পোন্নত দেশে পরিণত হয়।

অ্যান্টার্কটিকার ২০ শতাংশ বরফের চাদর গলে জল ৯ দিনে – আরও জানতে ক্লিক করুন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *