Pak PM Imran Khan Posts Fake Video

Pak PM: ইমরান বাংলাদেশের ভিডিও পোস্ট করে বিপাকে

আন্তর্জাতিক

মুসলিমদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে, এই অভিযোগ তুলে নয়াদিল্লিকে হেনস্থা করতে গিয়ে ভুয়ো ভিডিও পোস্ট করে বসলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী (Pak PM)।

মাঠের মানুষ চেয়ারে বসলে এমনই হয়। আবার মস্ত ভুল করে বসলেন ইমরান খান। উত্তরপ্রদেশে মুসলিমদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে, এই অভিযোগ তুলে নয়াদিল্লিকে হেনস্থা করতে গিয়ে ভুয়ো ভিডিও পোস্ট করে বসলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী (Pak PM)। এর ফলে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হল ইমরান খানকে। ভিডিওটি বাংলাদেশ পুলিশের হলেও তিনি সেখানে উল্লেখ করেছেন, ভারতের উত্তর প্রদেশে পুলিশ বাহিনী দ্বারা মুসলিমদের নির্যাতনের কথা।দেশের বিভিন্ন মিডিয়া ও অনলাইন ব্যবহারকারীরা ইমরান খানের পোস্ট করা ভিডিওটি সম্পর্কে তীর্যক মন্তব্য ও সমালোচনা করতে থাকে। এ অবস্থায় ভিডিওটি সরিয়ে নেন ইমরান খান।

আসলে ভিডিওটি ডিলিট করে দেওয়ার পরেও অনলাইন ব্যবহারকারীরা থেমে থাকেননি। শুক্রবার পাকিস্তানে নানকানা সাহিব গুরুদোয়ারায় আটকে পড়েন পুণ্যার্থীরা। উত্তেজিত জনতা গুরুদ্বারের পুণ্যার্থীদের লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে বলে অভিযোগ। যার নিন্দা করে ভারত। সেদেশের শিখ পুণ্যার্থীদের নিরাপত্তার জন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে আবেদন জানান পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। এরপরই নিজের দেশের ভাবমূর্তি বাঁচাতে ভারতে মুসলিমদের অত্যাচারিত হওয়ার অভিযোগ তোলেন ইমরান।

তীক্ষ্ণ রাজনৈতিক(!) ব্যক্তিত্ব ইমরানের ভিডিও ফুটেজটিতে দেখা যায়, নীল রঙের উর্দিধারী পুলিশ লাঠি হাতে রয়েছেন, তার সামনে পড়ে রয়েছেন একজন। সেটি বাংলাদেশের পুলিশ ও ব়্যাপিড অ্যাকশন ফোর্সের কোনো একটি অভিযানের পুরনো ভিডিও বলে জানা যায়। যদিও ভিডিওর ক্যাপশনে লেখা ছিল, ‘উত্তর প্রদেশে মুসলিমদের বিরুদ্ধে নির্যাতন’। ইউপি পুলিশের মতে, এটি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার ২০১৩ সালের মে মাসের ঘটনা। এটা বাংলাদেশের ৮ বছর আগের ভিডিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *