Pakistan Successfully Test Fires Indigenous Cruise Missile

পাকিস্তানের নিজস্ব প্রযুক্তির জাহাজ বিধ্বংসী ক্রুজ মিসাইল।

আন্তর্জাতিক

Pakistan Successfully Test Fires Indigenous Cruise Missile – মঙ্গলবার, উত্তর আরব সাগরে একটি দ্রুত হামলায় সক্ষম ফাস্ট অ্যাটাক ক্রাফট জাহাজ থেকে এই পরীক্ষা সাফল্যের সাথে চালানো হয়েছে।

এবার একেবারে নিজস্ব প্রযুক্তিতে নির্মিত জাহাজ বিধ্বংসী ও ভূমিতে হামলায় সক্ষম ক্রুজ মিসাইলের পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তানের নৌবাহিনী। প্রতিরক্ষা বিভাগে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে কাজ শুরু করেছে পাকিস্তান|গতকাল মঙ্গলবার, উত্তর আরব সাগরে একটি দ্রুত হামলায় সক্ষম ফাস্ট অ্যাটাক ক্রাফট জাহাজ থেকে এই পরীক্ষা সাফল্যের সাথে চালানো হয়েছে। আর তাই বুধবার পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ অধিদফতরের পক্ষ থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

আসলে পাকিস্তান জানে যে, সামরিক ক্ষেত্রে ক্রমশ শক্তিশালী হচ্ছে তাদের প্রতিবেশী ভারত। তাছাড়া বিশ্বের তাবড় তাবড় দেশগুলির কাছ থেকে একের পর এক শক্তিশালী সমরাস্ত্র কিনে চলেছে ভারত। আর তাই সামলাতে, প্রতিবেশী দেশের সামরিক শক্তিতে চাপ বাড়ছে পাকিস্তানের। চিনের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে পাকিস্তান।

জানা গিয়েছে,চিন এবং পাকিস্তান যৌথ ভাবে ব্যালিস্টিক এবং ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রসহ কয়েক ধরণের ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির পরিকল্পনা করেছে। সম্প্রতি চিন সরকারের মুখপত্র গ্লোবাল টাইমস -এ প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়েছে, চিন এবং পাকিস্তান যৌথ ভাবে ব্যালিস্টিক, ক্রুজ, জাহাজ এবং বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির পরিকল্পনা করেছে।

একেবারে নিজস্ব প্রযুক্তির ক্ষেপণাস্ত্রে বৈশিষ্ট্য বিবরণ দিতে গিয়ে পাকিস্তান জানিয়েছে, ভূমিতে নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে যথাযথভাবে হামলা চালাতে সক্ষম তাদের এই নতুন ক্ষেপণাস্ত্র।সমুদ্রে জাহাজ থেকে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের এই পরীক্ষা পাকিস্তান নৌবাহিনীর সক্ষমতার উর্বর প্রমাণ।

এর মধ্য দিয়ে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা শিল্প নতুনমাত্রা পেয়েছে।আরও জানানো হয়েছে, এ প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরতাই ফুটে উঠেছে।এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার ঘটনায় সন্তোষ প্রকাশ করেন পাকিস্তানের নৌবাহিনীর উপপ্রধান অ্যাডমিরাল খালিম শওকত।প্রকল্পটির প্রকৌশলী ও গবেষকদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।ফলে দুই দেশের মধ্যে চেনা মিত্রতার আবহাওয়া কিছুটা হলেও থেমে গেলো|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *