Typhoon Hagibis Causes Damage Across Japan

Typhoon Hagibis: ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় জাপানের দিকে

আন্তর্জাতিক

শক্তিশালী এই টাইফুনের (Typhoon Hagibis) প্রভাবে রাজধানী টোকিওতে গত ৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।

ঝড়ের গতি ও শক্তি গোটা বিশ্বকে ভাবিয়ে তুলেছে। কয়েক দশকের মধ্যে সবথেকে শক্তিশালী টাইফুন হাজিবিস (Typhoon Hagibis) জাপানের দিকে ধেয়ে আসছে। শক্তিশালী এই টাইফুনের প্রভাবে রাজধানী টোকিওতে গত ৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। তাই হাজিবিসের আঘাতকে সামনে রেখে জাপান সরকার ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। এরই মধ্যে শনিবারের নির্ধারিত ১২৮০টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে টোকিওর প্রধান দুইটি বিমানবন্দর থেকে সব অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া বুলেট ট্রেনসহ বহু ট্রেনসেবা বাতিল করা হয়েছে।

জাপানের আবহাওয়া দপ্তর এবং টাইফুন ওয়ার্নিং সেন্টার জানিয়েছে, এই ঘূর্ণিঝড়ের সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়তে পারে টোকিওতেই। ১৩০ মাইল প্রতি ঘণ্টা বেগে আছড়ে পড়বে এটি। অতি ভারী বৃষ্টিপাতও হবে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, এই টাইফুনের প্রভাবে রাজধানী টোকিওতে গত ৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। হাজিবিসের আঘাতকে সামনে রেখে জাপান সরকার ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে।’ক্যাটেগরি ৩’ পর্যায়ের ঘূর্ণিঝড়টির প্রভাবে টোকিওর মেট্রোপলিটন এলাকাসহ জাপানের কান্ট-কোশিন অঞ্চলে বাড়িঘর ভেঙে পড়তে পারে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এর কারণে প্রচণ্ড বাতাসের পাশাপাশি উঁচু ঢেউ ও উত্তরপূর্ব থেকে পশ্চিম জাপান পর্যন্ত রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তর। দেশটির আবহাওয়াবিদরা বলছেন, টাইফুন হাজিবিসের তীব্রতা ১৯৫৮ সালে আঘাত হানা টাইফুনের সমকক্ষ হতে পারে। ওই সময় আঘাত হানা টাইফুনে এক হাজার ২০০-র বেশি মানুষ নিহত হয়।গত মাসে জাপানে আঘাত হানে আরেকটি শক্তিশালী টাইফুন ফাক্সাই। ওই ঝড়ের কারণে রাজধানী ও আশপাশের এলাকায় বিঘ্নিত হয় পরিবহন চলাচল। বিদ্যুত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ব্যাপক এলাকা। ওই ঝড়ের ক্ষত কাটিয়ে ওঠার মধ্যেই এগিয়ে আসছে নতুন টাইফুন। এরই মধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে অনেক দোকানপাট, কল কারখানা এবং ট্রেন চলাচলও। জাপানে শনিবার অনুষ্ঠেয় রাগবি বিশ্বকাপ এবং ফর্মুলা ওয়ান রেসও এ ঝড়ের কারণে ব্যাহত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *